বুধবার, জুন ১২, ২০২৪
Homeজাতীয়“আড়াই বছরের শিশুও কি জঙ্গি হয়?” -কাদের সিদ্দিকী

“আড়াই বছরের শিশুও কি জঙ্গি হয়?” -কাদের সিদ্দিকী

ম সাইফুল ইসলাম শাফলু: জঙ্গিবিরোধী অভিযানে শিশুদের নিহতের ঘটনায় ক্ষোভ ও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম। তিনি বলেছেন, সিলেটের জঙ্গি আস্তানায় সাত জঙ্গিকে গুলি করে মারা হয়েছে। বোমা মেরেছে বলে জঙ্গি হিসেবে তারা নারীদের মেরেছে, আড়াই বছরের বাচ্চাকেও মেরেছে। এ সময় সরকারকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আড়াই বছরের বাচ্চাও কি জঙ্গি হয়? মায়ের কোলের শিশুও আজকাল জঙ্গি হয়! সরকারকে এর জবাব দিতে হবে।’বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার দাড়িয়াপুর এসএ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের গামছা মার্কার পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন। কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘ওই শিশুকে বাঁচাতে যদি সাতজন মিলিটারিও মারা যেত, তবুও ওই শিশুদের বাঁচানো উচিত ছিল। এভাবে দেশের সর্বনাশ করা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘বোকা সরকার সেই জঙ্গিদের ডিএনএ টেস্ট করে নাকি জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা যাচাই করবে। ডিএনএ টেস্ট করে জঙ্গিত্ব যাচাই করা যায় না, উত্তরাধিকার যাচাই করা যায়।’ উল্লেখ্য, মৌলভীবাজারের নাসিরপুরের জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন হিটব্যাকে’ এক পুরুষ, দুই নারী এবং চার শিশু নিহত হয়। এরমধ্যে দুই থেকে তিন মাস বয়সী এক শিশু ছিল। অন্য তিন শিশুর বয়স দুই বছর, সাত বছর ও ১০ বছর। পরে উপস্থিত প্রায় দুই সহস্রাধিক মানুষের কাছে গামছা প্রতীকে ভোট চান কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি। পথসভায় আবু ছাইদ জিন্নাহর সভাপতিত্বে জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সহ-সভাপতি আবদুল হালিম সরকার লাল, সাধারণ সম্পাদক হাসমত আলী নেতা, উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মীর জুলফিকার শামীম, চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী সানোয়ার হোসেন মাস্টার, দুলাল হোসেন, আলমগীর সিদ্দিকী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -