সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪
Homeবিবিধএফবিআই এর সতর্কবার্তা: যুক্তরাজ্যের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে তারেক রহমান

এফবিআই এর সতর্কবার্তা: যুক্তরাজ্যের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে তারেক রহমান

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: তারেক রহমান সম্পর্কে যুক্তরাজ্যকে আবারো সতর্ক করল মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। সংস্থাটি তারেক রহমানকে লন্ডনে রাখা নিরাপদ নয় বলেই মনে করছে। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের কাছে পাঠানো এক গোপন বার্তায় তারেক জিয়াকে উগ্রবাদী জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষক এবং মদদদাতা হিসেবে চিহ্নিত করেছে এফবিআই। তাদের মতে, রাজনৈতিক নেতা হিসেবে নয়, তারেক জিয়ার উত্থান হচ্ছে অন্ধকারের রাজা হিসেবে, একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী এবং মাফিয়া হিসেবে। তারেক রহমানকে যুক্তরাজ্যের সর্বোচ্চ নজরদারিতে রাখার পরামর্শ দিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থাটি।

এফবিআই বলেছে, ‘এই ব্যক্তিটি যুক্তরাজ্যের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে’। এফবিআই ওই সতর্কবার্তায় আরো বলে, তারেক রহমান ‘পলিটিক্যাল টেররিস্ট’। আসলে রাজনৈতিক কৌশল অবলম্বনের চাইতে বল প্রয়োগেই বিশ্বাস করে তারেক রহমান। এফবিআই ওই গোপন বার্তায় পূর্বাভাস দিয়েছে, ‘তারেক জিয়া আগামী ৬ মাসের মধ্যে বাংলাদেশে বড় ধরনের সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটানোর জন্য পরিকল্পনা করছে’। এই পরিকল্পনার কিছু নমুনা এফবিআই যুক্তরাজ্যকে দিয়েছে। বিভিন্ন দেশের সন্দেহভাজন, উদ্বেগজনক এবং ভয়ংকর ব্যক্তিদের সম্পর্কে এফবিআই আগাম সতর্কবার্তা দিয়ে থাকে। এর আগে দাউদ ইব্রাহিম, পারভেজ মোশাররফ সহ অনেক বিষয়েই এফবিআই সতর্কবার্তা দিয়েছিল। কিন্তু তদুপরি তারা দাউদ ইব্রাহিমকে লন্ডনে আশ্রয় দিয়েছিল। যা ছিল যুক্তরাজ্য সরকারের ভুল সিদ্ধান্ত। এখন তারেক রহমানকে নিয়ে যুক্তরাজ্যের যেকোন সিদ্ধান্ত ভুল হলে তার মাশুল যুক্তরাজ্যকেই দিতে হবে। এফবিআই তার গোপন বার্তায় বলেছে, ‘বিএনপির নেত্রীবৃন্দকেও রাজনৈতিক নেতৃত্ব থেকে তারেক রহমানকে বাদ দেওয়ার জন্য বারংবার অনুরোধ করার পরও তারা অনুরোধ শোনে নি। ২০০৭ সালে আর রাজনীতি করবেন না, এই মুচলেকা দিয়েই তিনি দেশত্যাগের অনুমতি পান। কিন্তু আসলে তিনিই এখন বিএনপির মূল নেতা। বিএনপি তাকে বাদ দিয়ে কোনো রাজনৈতিক পরিকল্পনার কথা চিন্তাও করতে পারে না। সমস্যা হলো, তার চিন্তাগুলো রাজনীতি চিন্তার নয় বরং সন্ত্রাস মনস্ক।’ এফবিআই মনে করছে, লন্ডন থেকে তারেক জিয়া এমন কিছু ব্যক্তি ও গোষ্ঠীর সঙ্গে যোগাযোগ করছে এবং মদদ দিচ্ছে যারা সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক। সে আসন্ন ঘৃণ্য পরিকল্পনায় তার সব রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক শক্তি ব্যয় করছে। অবিলম্বে এই তৎপরতা বন্ধ না হলে সন্ত্রাসবাদই লাভবান হবে। এফবিআই জানায়, খালেদা জিয়ার জিয়া অরফানেজ মামলায় কারাদণ্ডের কারণে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এখন তারেক রহমান। এমতাবস্থায় দলটিকে বৃহৎ কোনো আন্দোলেনে যেতে দেখাও যাচ্ছে না। কারণ তারেক রহমান বাংলাদেশে বড় ধরনের কিছু সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটানোর জন্য ভয়ংকর পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে। ঐ সব পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে, যুক্তরাজ্যে সন্তাসবাদের ঝুঁকি বাড়বে। এজন্য এখনই এ ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের মনোযোগী হওয়া উচিত।

উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে তারেক জিয়া এফবিআই এর বিপজ্জনক ব্যক্তিদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত লাল তালিকাভুক্ত এ ধরনের ব্যক্তিরা বিশ্বের যে প্রান্তেই থাকুক না কেনো, এফবিআই এর নজরদারিতে থাকে।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -