বুধবার, জুন ১২, ২০২৪
Homeদেশের খবরপা দিয়ে লিখে জিপিএ-৪.৫৭ পেলেন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী হাবিব

পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৪.৫৭ পেলেন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী হাবিব

হাবিব রাজবাড়ী কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউনিয়নের হিমায়েতখালি গ্রামের কৃষক আব্দুস সামাদের ছেলে। হাবিব পাংশা উপজেলার পুঁইজোর সিদ্দিকিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসা থেকে এবার আলিম (এইচএসসি) পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন।

দুই হাত না থাকায় পা দিয়ে লিখে এবার আলিম (এইচএসসি সমমান) পরীক্ষায় জিপিএ ৪.৫৭ পেয়েছেন হাবিবুর রহমান হাবিব (১৯)। গতকাল বুধবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সাঈদ আহম্মেদ।

দরিদ্র কৃষক পরিবারের সন্তান হাবিবুর রহমান। চার ভাই বোনের মধ্যে তৃতীয় হাবিব। দুই বোনের বিয়ে হলেও পরিবারে আছে ছোট বোন। সেও পড়াশোনা করছে। ছোট বেলায় বাবা-মা, চাচা ও পরিবারের অন্যদের অনুপ্রেরণায় পা দিয়ে লেখার অভ্যাস করেন হাবিব। জন্মলগ্ন থেকেই হাবিবের দুই হাত নেই।

হাবিবুর রহমান বলেন, ‘খুব কষ্ট করে পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা ছিল আলিম পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পাব। কিন্তু পেয়েছি ৪ দশমিক ৫৭। তারপরও আমি খুশি হয়েছি। ভবিষ্যতে লক্ষ্য ইসলামী ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হওয়ার। পড়াশোনা করে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়াতে চাই। এ জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।’

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সাঈদ আহম্মেদ বলেন, ‘দরিদ্র পরিবারের সন্তান হাবিব। তবে সে অত্যন্ত মেধাবী। ফলে প্রতিবন্ধকতাকে হার মানিয়ে এবারের আলিম পরীক্ষায় জিপিএ ৪ দশমিক ৫৭ পেয়েছে। পা দিয়ে লিখে এ রকম ফলাফল অর্জন করা সত্যিই কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

হাবিবের পড়াশোনা চালিয়ে যেতে মাদ্রাসা ও ব্যক্তিগতভাবে সহযোগিতা করেছে এবং ভবিষ্যতে উচ্চ শিক্ষা লাভের ক্ষেত্রেও সহযোগিতা করা হবে।’

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -