বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০২৪
Homeটাঙ্গাইল জেলাবাসাইলে আরও ৩০ ভূমি ও গৃহহীন পেল পাকা ঘর

বাসাইলে আরও ৩০ ভূমি ও গৃহহীন পেল পাকা ঘর

  • শরীফুজ্জামান, বাসাইল: মুজিববর্ষে ৩য় ধাপে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলায় ৩০টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবার সরকারের আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর আওতায় দলিলসহ নব-নির্মিত বাসগৃহ পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২১জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাসগৃহ হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

বাসাইল উপজেলা হল রুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে উপকারভোগীদের হাতে বাসগৃহের কবুলিয়ত দলিল তুলে দেন বাসাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা পারভীন,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজি অলিদ ইসলাম।

কাউলজানি ইউনিয়নের ভাসানী সুত্রধর বলেন আমার বিয়ে হয়নি এখনো মা বাবা ভাই বোন কেউ নাই আমি অন্যের বাড়িতে থাকি এখন সরকারি ঘর পেয়ে আমার অনেক উপকার হয়েছে।

কাউলজানি মাঝি পাড়ার শুভাস বলেন, অটো চালিয়ে কোন রকম সংসার চালাই। বাপের তেমন কোন সম্পদ না থাকায় সাত বছর আগে আমাকে পৃথক করে দেয়। তারপর অন্যের বাড়িতে ভাড়া থাকতাম। ঘর পেয়ে আমার পরিবারের স্থায়ী ঠিকানা হলো।

বাসাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা পারভীন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছে সারা বাংলাদেশে একজন মানুষও ভূমি ও গৃহহীন থাকবে না। তারই অংশ হিসেবে সারা বাংলাদেশে আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে গৃহহীনদের গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় বাসাইল উপজেলা আরও ৩০টি ঘর প্রস্তুত করেছি। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘর হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন। গৃহহীনদের একেকটি ঘর তাদের একেকটি অঙ্গীকার।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম বলেন, ইতিপূর্বে যে সকল গৃহহীনদের মাঝে ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। সেই সব আশ্রয়নে বিশুদ্ধ পানি, বিদ্যুৎ, বৃক্ষরোপন করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের স্বাবলম্ভী করতে সেলাই প্রশিক্ষনের মাধ্যমে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়েছে। এ দিকে বন্যায় ভাঙনের শিকার হয়ে যে সকল মানুষ গৃহহীন ও ভূমিহীন হয়েছে তাদেরও তালিকা প্রস্তুত করে জমিসহ গৃহ নির্মাণ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাসাইল উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আরিফুন্নাহার রিতা,পৌরসভার মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিম আহমেদ,বাসাইল থানার অফির্সাস ইনচার্স মোস্তাফিজুর রহমান,বাসাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা শার্লী হামিদ,কাউলজানি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউল গনি হাবিব, হাবলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম,জোবেদা রুবেয়া মহিলা কলেজের অধ্যাক্ষ মশিউর রহমান খান আপেল,বাসাইল ডিগ্রী কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাক্ষ জাহাঙ্গীর হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাওয়াখাত হোসেন প্রমুখ।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -