সোমবার, মে ২৭, ২০২৪
Homeটাঙ্গাইল জেলাদেলদুয়ারভূয়া বিল ও লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ গ্রাহক, দেলদুয়ার-টাঙ্গাইল সড়ক অবরোধ

ভূয়া বিল ও লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ গ্রাহক, দেলদুয়ার-টাঙ্গাইল সড়ক অবরোধ

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে রমযান মাসে বাংলাদেশ পাওয়ার ডেবলপমেন্ট বোডের্র (পিডিবি) ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠি হয়ে পড়েছে জনসাধারন। মিটার না দেখে ভূয়া বিল বানিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। গত পনের দিনে উপজেলার পাথরাইল ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে বিদ্যুত না থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে এলাকাবসাী। দিনের বেলায় ২ থেকে ৩ দিন ঘন্টার বেশি বিদ্যুত থাকছেনা। যার ফলে অতিষ্ঠি জনগন গতকাল শুক্রবার সকালে দেলদুয়ার-টাঙ্গাইল সড়কের শাহিন শপিংমল নামক স্থানে একত্রিত হয়ে সড়ক অবরোধ করে। অবরোধের ফলে দেলদুয়ার-টাঙ্গাইল সড়কের দুই পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। প্রায় ঘন্টা ব্যাপি অবরোধ কর্মসূচীতে বিদ্যুতের দাবিতে শ্লোগান দিতে থাকে বিক্ষুব্ধ জনতা।
খবর পেয়ে দেলুদয়ার থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

অপরদিকে তার এক ঘন্টা পর পাথরাইল ইউনিয়নের অলোয়া চিনাখোলা গ্রামে একই ঘটনা ঘটেছে। বিদ্যুতের দাবিতে ও ভুয়া বিল তৈরির প্রতিবাদে আন্দোলন করেছেন এলাকাবাসী। পরে দেলদুয়ার থানা পুলিশ ও টাঙ্গাইল সদর মডেল থানা থেকে পুলিশ ফোর্স এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এসময় পুলিশ জেলা পিডিবির উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ফোন করলে সহকারি প্রকোশলী আব্দুর রহিম ঘটনাস্থলে এসে জনগনকে বিদ্যুত সংযোগ চালু করার ও সব সমস্যার সমাধান করা হবে বলে আশ্বাস করলে জনগন অবরোধ তুলে নেয়। এসময় পিডিবির ঐ কর্মকর্তা অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন।

রুবেল মিয়া জানান, গত ৫ থেকে ৬ মাস যাবৎ আমার বাড়িতে কোন বিদ্যুত বিল আসেনা। হঠাৎ করে বিদ্যুত বিল আসে তাতে হাজার টাকা লেখা থাকে যা আমাদের পক্ষে পরিশোধ করা অসম্ভব। মঙ্গলহোড় গ্রামের মিজান জানান, আমি দুটি বাল্ব ও একটি ফ্যান চালাই। আর তাতেই আমার গত দুমাসে ২ হাজার ২৪ টাকা বিল দিতে হয়েছে। আশ্চার্যের ব্যাপার হলো তারা কোন মিটারের ইউনিট না দেখেই অফিসে বসে ইচ্ছেমতো বিল তৈরি করে। আমরা এসব অসাধু কর্মকর্তাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানাই।

ফালু মিয়া জানান, গত ৮ মাসে আমি ৫৫ হাজার টাকা বিদ্যুত বিল দিয়েছি। অফিসে অভিযোগ করেও কোন লাভ হয়না।
এছাড়াও জিয়ারত জয়নাল মাইনউদ্দিন সহ অনেকেই পিডিবির এমন অসাধু কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে দেলদুয়ার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। জনগনকে শান্ত করার চেষ্টা করি। এবং জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও পিডিবির লোকজনের সাথে কথা বলি। পিডিবির কর্মকর্তারা জনগনের দূর্ভোগ নিরসনে দ্রুত কার্যকরি ব্যবস্থা নেবে বলে আমাকে জানিয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রনে আছে।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -