বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
Homeটাঙ্গাইল জেলামির্জাপুরমির্জাপুরে চিকিৎসার নামে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের অভিযোগ সালিশে জুতাপেটা

মির্জাপুরে চিকিৎসার নামে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের অভিযোগ সালিশে জুতাপেটা

মির্জাপুর প্রতিনিধি :
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে চিকিৎসার নামে এক প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের বলটিয়া গ্রামে। ভণ্ড কবিরাজ একই গ্রামের মৃত ইয়াদ আলীর ছেলে মো. আব্বুস আলীকে (৫০) গ্রাম্য সালিশে ১০টি জুতাপেটা করা হয়েছে। আব্বাস আলী চিকিৎসার নামে দীর্ঘদিন ধরে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে আসছে বলে মেয়েটির পরিবার অভিযোগ করে।
এলাকাবাসী জানায়, বলটিয়া গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির তিন মেয়ে ও তিন ছেলে রয়েছে। তার বড় মেয়ে মানসিক প্রতিবন্ধী। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন এলাকা থেকে কবিরাজের মাধ্যমে চিকিৎসা করিয়ে থাকেন। এক বছর আগে একই গ্রামের পার্শ্ববর্তী বাড়ির আব্বাস আলী (সম্পর্কে চাচা) মেয়েটির মাকে বলেন, আমি চিকিৎসা করিয়ে দেখি উপকার হয় কিনা। তার কথায় মেয়েটির মা মেয়েটিকে চিকিৎসার অনুমতি দেন। মাঝে মধ্যে আব্বাস আলী চিকিৎসার কথা বলে রাতে মেয়েটির কক্ষে গিয়ে এক থেকে দেড় ঘণ্টা অবস্থান করেন। সর্বশেষ গত শনিবার রাতে বিষয়টি জানাজানি হলে গ্রামের লোকজনকে জানালে গ্রামের মাতব্বররা রাতেই সালিশে বসেন এবং আব্বাস আলীকে ১০টি জুতাপেটা করেন। গ্রামের বাসিন্দা ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান খান বলেন, মেয়েটির মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রাম্য সালিশ বসেছিল।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -