শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪
Homeদেশের খবরময়মনসিংহে ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল, না দিলে মামলার হুমকি

ময়মনসিংহে ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল, না দিলে মামলার হুমকি

ভৌতিক বিদ্যুৎ বিল নিয়ে হয়রানির শিকার ময়মনসিংহ অঞ্চলের পিডিবি’র বিদ্যুৎ গ্রাহকেরা। মিটার রিডিংয়ের চেয়ে অনেক বেশি বিল করা হয়েছে শতশত গ্রাহকের নামে। গ্রাহকদের অভিযোগ, মিটার রিডিং না দেখেই কয়েকগুণ বেশি বিল করা হচ্ছে। তবে পিডিবির কর্মকর্তারা বলছেন, বাড়তি বিল পরবর্তী বিলের সাথে ক্রমান্বয়ে সমন্বয় করে দেয়া হবে।

ময়মনসিংহে বিদ্যুৎ বিল নিয়ে নানা বিড়ম্বনার শিকার পিডিবি’র গ্রাহকেরা। সময়মতো বিল না পাওয়া, মিটারে রিডিং না দেখে মনগড়া বিল করাসহ ভূতুড়ে বিল নিয়ে নানা অভিযোগ গ্রাহকদের। ময়মনসিংহ সদর, ফুলপুরসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় ভৌতিক বিল নিয়ে দিশেহারা গ্রাহকরা। মিটারে বর্তমান রিডিংয়ের চেয়ে তিনশো থেকে তিন হাজার ইউনিট পর্যন্ত বেশি বিল করা হয়েছে শতশত গ্রাহকের নামে। এ নিয়ে বিদ্যুৎ অফিসে ধর্না দিয়েও প্রতিকার মিলছে না বলে অভিযোগ গ্রাহকদের। উল্টো ৩০ জুনের মধ্যে বিল পরিশোধ না করলে মামলার হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও জানান তারা।

এক গ্রাহক বলেন, আগে আমার ৮শ’ টাকার মতো বিল আসতো। এবার মার বিল এসেছে ১৮ হাজার টাকা।

আরেকজন বলেন, আগে ৩শ’ টাকা আসতো। এবার এসেছে ৭ হাজার।

অপর একজন বলেন, সংশোধন করতে গিয়েছিলাম। তারা বলেন, যে বিল এসেছে সেটাই দিতে হবে। নাহলে তারা মামলা করে দেবে।

মিটার না দেখে মনগড়া বিল দিয়ে টাকা আদায়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন গ্রাহক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আলী ইউনুস বলেন, এই অন্যায় বিদ্যুৎ বিল দিয়ে গ্রাহকদের হয়রানি করার পেছনে যারা জড়িত তাদের বিচার দাবি করছি।

তবে পিডিবির কর্মকর্তারা বলছেন, বাড়তি বিল পরবর্তী বিলের সাথে ক্রমান্বয়ে সমন্বয় করা হবে।

ময়মনসিংহের বিউবো ফুলপুরের বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এ জেড এম আনোয়ারুজ্জাান বলেন, কিছু কারেকশন করে দিচ্ছি। পরবর্তীতে যারা আসবে তাদেরও কারেকশন করে দেবো।

ময়মনসিংহ বিউবো বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী ইন্দ্রজিৎ দেবনাথ বলেন, গ্রাহকদের একটা ভুল ধারণা যে আমরা বেশি বিল করেছি। আসলে আমরা মিটারের সঙ্গে মিল রেখেই বিল করেছি। তারপরেও যদি কোনো গ্রাহকের ভুল আসে তাহলে সেটা সংশোধন করে দিচ্ছি।

ময়মনসিংহ জেলায় পিডিবির গ্রাহক সংখ্যা প্রায় চার লাখ।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -