বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
Homeঅপরাধসখীপুরে খুনের ৫ মাস পর রহস্য উদঘাটন

সখীপুরে খুনের ৫ মাস পর রহস্য উদঘাটন

এম সাইফুল ইসলাম শাফলুঃ :টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার হতেয়া গ্রামের উলিয়াচালা এলাকার আরফান আলীর (৫৫) খুনের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ঘটনার পাঁচমাস পর ময়নাতদন্তে জানা যায় আরফান আলীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় রোববার রাত চারটার দিকে ‌তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে নাছিমা বেগম (৪০) নামের এক গৃহবধূকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নাছিমা একই এলাকার নছিম উদ্দিনের মেয়ে।  সোমবার গ্রেপ্তার হওয়া নাছিমা বেগম আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনায় জড়িত আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে গ্রেপ্তারকৃত তিনজন হলেন- নাছিমার ভাই আলম মিয়া (৪৫), ভাবি ছালেহা বেগম (৪২) ও ভাতিজি জামাই আমিনুর রহমান স্বপন (৩০)।

পুলিশ জানায়, হত্যাকাণ্ডের প্রায় এক বছর আগে থেকেই আরফান আলীর সঙ্গে নাছিমার পরকীয়া সম্পর্ক চলছিল। ঘটনার রাতে (৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩) ফোন করে নাছিমা একই এলাকায় তাঁর বাবার বাড়িতে আরফান আলীকে ডেকে নেন। ওই বাড়িতেই চারজন মিলে আরফান আলীর গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। পরে ওই রাতেই মরদেহটি আরফানের বাড়ির কাছে সড়কের পাশে ফেলে রেখে যায়। পরেরদিন সখীপুর থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। আরফান আলী ওই এলাকার মৃত কুরবান আলীর ছেলে।

সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান বলেন, এই ঘটনায় মূল আসামি নাছিমা ইতোমধ্যেই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। বাকি তিন আসামিকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -