বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
Homeঅপরাধসখীপুরে দুর্নীতির দায়ে পিডিবির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বদলি

সখীপুরে দুর্নীতির দায়ে পিডিবির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বদলি

নিজস্ব প্রতিনিধি:  টাঙ্গাইলের সখীপুরে দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত
পিডিবির ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে বদলি করা হয়েছে। সম্প্রতি তাদের বদলি করা
হয়। তারা হচ্ছেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী শামছুল আলম, উচ্চমান সহকারী মাহমুদুল
হাসান খান ও মিটার পাঠকের দায়িত্বে থাকা লাইনম্যান আসাদুজ্জামান (এ) ও
লাইনম্যান (এ) মিজানুর রহমান মুন্না। এদিকে, অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে
বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।
সম্প্রতি তারা এ অভিযোগ দেন। এর আগে এক কর্মকর্তা ও তিন কর্মচারী সখীপুরে
দায়িত্ব পালনকালে তাদের নামে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। ওই
অভিযোগের ভিত্তিতে বিদ্যুৎবিভাগের ঢাকা, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইলের উর্ধ্বতন
কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে পৃথক দুটি তদন্ত কমিটি গঠন হয়। তদন্ত কমিটিতে ছিলেন
বিউবো ঢাকা দপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী প্রিন্স রেজা, বিউবো ময়মনসিংহ
দপ্তরের সহকারী প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ ও টাঙ্গাইল বিউবোর
তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী উবাইদুল ইসলাম। এই কমিটি দীর্ঘ তদন্ত শেষে
প্রতিবেদন জমা দেন উর্ধ্বতনও কর্তৃপক্ষের কাছে। এতে উপ-সহকারী প্রকৌশলী,
উচ্চমান সহকারী ও দুই লাইনম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির সত্যতা
পাওয়া যায় বলে ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। তাদের অনিয়ম ও দুর্নীতির
কারনে সরকারের বিপুল পরিমাণ টাকার রাজস্বের ক্ষতি হয়েছে বলেও
প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযোগ ও তদন্ত প্রতিবেদনের কপি এ
প্রতিনিধির হাতে এসেছে।
এদিকে, অনিয়ম ও দুর্নীতি প্রমাণ হওয়া সত্তে¡ও শুধুমাত্র অন্যত্র বদলি এবং
কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা না হওয়ার বিষয়ে ভুক্তভোগীদের পক্ষে পরেশ চন্দ্র
সরকার, আবদুল মান্নান, শামীম আল-মামুন নামের ব্যক্তিরা
বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
তদন্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, তদন্ত কমিটি পিডিবির
কার্যালয়ে মিটার রিডিং বই, মিটার পরিবর্তন রেজিস্টার, নতুন সংযোগের জন্য
গ্রাহকের আবেদন রেজিস্টার, বিভাগীয় ভান্ডার, ভান্ডারে রক্ষিত মিটার ও
রেজিস্টার ইত্যাদি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এতে ব্যাপক অনিয়ম পেয়েছেন। এসব
কিছুর মধ্যে ওই ৪ কর্মকর্তা-কর্মচারী জড়িত ছিলেন। তৎকালীন নির্বাহী
প্রকৌশলী ছিলেন সাহাগীর হোসেন। তদন্ত কমিটি পিডিবির বিধিলংঘন হওয়া,
সরকারের বিপুল পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতির হওয়ায় তাদের নামে শাস্তিমূলক
ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো নিয়ে কোনো কথা বলতে
রাজি হননি ওই ৪ কর্মকর্ত-কর্মচারী।
 এ প্রসঙ্গে পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী আবুবকর তালুকদার বলেন,
বিষয়টি তিনি যোগদানের আগের ঘটনা, এ ব্যাপারে তিনি কিছুই জানেন না বলে
জানান।
নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -