মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২৩
Homeটাঙ্গাইল জেলাসখীপুরে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে জমি দখলের অভিযোগ

সখীপুরে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে জমি দখলের অভিযোগ

 

 

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু :

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার বড়চওনা কওমি মাদরাসা এলাকায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা (১৪৪ ধারা ) উপেক্ষা করে মো. খালেক মিয়ার বিরুদ্ধে একই গ্রামের আবদুল আবদুর রাজ্জাক (৬৫) নামের এক বৃদ্ধার জমি জবর দখল করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে । খালেক মিয়া ওই গ্রামের মৃত কাজিম উদ্দিনের ছেলে। রোববার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

 

মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বড়চওনা মৌজার ৩১ দাগে ৪৪৪ খতিয়ানে ৯৮ শতাংশ জমি রয়েছে। পৈত্রিক সূত্রে খালেক মিয়া পোনে দুই শতাংশ জমির মালিক। ১৯৯৮ সালে আবদুর রাজ্জাকের কাছে ওই জমিসহ অন্যান্য দাগের ২১ শতাংশ জমি বিক্রি করে পরিবার পরিজন নিয়ে সে সিলেটে পারি জমান। যার দলিল নং ২১৭। খালেক মিয়া মাস দুয়েক আগে ওই জমিটি তাঁর লোকজন নিয়ে দখলের চেষ্টা করলে আবদুর রাজ্জাক বাদী হয়ে এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল আদালতে  মামলা করেন। পরে ওই জমির ওপর আদালত ১৪৪ ধারা জারি করে। রোববার সকালে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জবরদখল খালেক মিয়া ও তাঁর লোকজন ঘর নির্মাণ শুরু করে।

 

এ ব্যাপারে খালেক মিয়া বলেন, পৈত্রিক সূত্রে আমি ওই জমির মালিক। ছেলে সন্তান নিয়ে সিলেটে থাকায় রাজ্জাক জমিটি দখল নিয়েছে।

 

মামলার বাদী আবদুর রাজ্জাক বলেন,  দীর্ঘদিন ধরে ক্রয়কৃত ওই জমির খাজনা খারিজ নামজারি করে ভোগদখল করে আসছি।

 

কালিয়া ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারি কর্মকর্তা নাজমা সুলতানা বলেন, আবদুর রাজ্জাক ৩১ দাগের ওই জমিটি ১৯৯৮ সাল থেকে হালনাগাদ খাজনা খারিজ দিয়ে আসছেন।

 

সখীপুর থানার ওসি মাকছুদুল আলম বলেন, উভয়পক্ষকে ১৪৪ ধারার নোটিশ পৌছে দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -