পুরনো বছরকে বিদায়ঃ ভূঞাপুরে নানা আয়োজনে পাঁচ দিন ব্যাপি বর্ষবরণ

মো. ফরমান শেখঃ বাংলা পুরনো বছরকে বিদায় জানিয়ে নতুন বছর ১৪২৪ সালকে বরণ করে নিতে সারা দেশের ন্যায় টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে উপজেলা প্রশাসন ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক পরিষদের উদ্যোগে পাঁচ দিন ব্যাপি বাংলার বাঙালির প্রাচীনতম বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) ভূঞাপুর পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরের সামনে লাঠি বারি খেলার মধ্যে দিয়ে শোভাযাত্রা বের করে পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ঐ স্কুল মাঠে শেষ করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা মো. আশরাফ হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. এডভোকেট আব্দুল হালিম, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক ও পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুদুল হক মাসুদ, ভূঞাপুর থানা ইনচার্জ অফিসার (ওসি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ.কে.এম কাউছার চৌধুরী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শাহিনুল ইসলাম, ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বেনজীর আহাম্মেদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিনুল ইসলাম তরফদার বাদল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ হোসনে আরা বেবী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার এম.এ আব্দুল মজিদ মিয়া, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক মো. শফি উদ্দিন তালুকদার, উপজেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি নিখিল চন্দ বষাক প্রমুখ। অন্যান্যদের মাঝে বর্ষবরণে উপস্থিত ছিলেন উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবকসহ নানা পেশাজীবি মানুষ অংশ্রহন করে। এছাড়াও বৈশাখী মেলাকে কেন্দ্র গড়ে ওঠেছে সরকারি-বেসরকারি ও ব্যক্তি মালিকানাধীনসহ বিভিন্ন ধরণের শতাধিক স্টল।

আয়োজকরা জানান, গ্রাম-বাংলার প্রাচীনতম পহেলা বৈশাখকে ধরে রাখতে প্রতিবছরের ন্যায় এবারো আমরা বৈশাখী মেলার আয়োজন করেছি। গতবারের তুলনায় এবার মেলাতে অর্ধশতাধিক স্টল বেশী হয়েছে যা চোখে পড়ার মত এবং এ মেলা চলবে পাঁচ দিন।
ভূঞাপুর থানা ইনচার্জ অফিসার (ওসি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ.কে.এম কাউছার চৌধুরী জানান, মেলায় যাতে কোন ধরণের বিশৃঙ্খলা কেউ সৃষ্টি না করতে পারে সে লক্ষে সকল ধরণের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.