ব্রেকিং নিউজ :

ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) বিরুদ্ধে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের নারী নির্যাতনের অভিযোগ

ঘাটাইল(টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীনের বিরুদ্ধে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের নারী নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন। ইউএনও’র বিরুদ্ধে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ভাইসচেয়ারম্যান কানিজ ফাতেমা স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ে, দৃষ্টি আর্কষণের জন্য জন প্রশাসন মন্ত্রনালয়ের সচিব ,বিভাগীয় কমিশনার ও টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসকের নিকট একটি আবেদন পত্র প্রেরণ করেছেন।
আবেদন পত্রে বলা হয়েছে , উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে উপজেলা মহিলা ভাইসচেয়ারম্যানের স্বাভাবিক দাপ্তরিক কাজ চলে আসছিল। কিছু দিন পর ইউএনও মহিলা ভাইসচেয়ারম্যানকে তার দপ্তরে ডেকে নিয়ে তার বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ জমা দিতে বলেন এবং তাকে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার প্রদানের আশ্বাস দেন। এর ঠিক কয়েক দিন পর তার অফিসে মহিলা ভাইস চেয়াম্যাকে ডেকে নিয়ে ইউএনও’র ব্যক্তিগত মোবাইলে ফোন এবং তাকে সময় দেওয়ার জন্য বলেন। এতে ভাইস চেয়ারম্যান তার অনৈতিক ও কুপ্রস্তাবে রাজী না হওয়াতে তাকে বিভিন্ন প্রকার হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগে জানা যায়। জাতীয় দিবসে ও উপজেলার মাসিক সভায় তাকে জনগণের নিকট হেয়পতিপন্ন করা হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে কানিজ ফাতেমার সাথে কথা বললে তিনি আরো জানান, এই ইউএনও মাঝে মধ্যেই তার অফিস থেকে চেয়ার সরিয়ে ষ্টোর রুমে রেখে দেয়। এ ছাড়া তার দপ্তরের জন্য একজন পিয়ন থাকার কথা থাকলেও ঐ পিয়ন দিয়ে ইউএনও’র বাসায় কাজ করানো হয় বলে তিনি জানান। কোন লোকজন আসলে তাদেরকে আপ্যায়ন করা যায় না।
একটি আমাদের ঘাটাইল ডটকম ও এটিভি নিউজ নামে দুটি অনলাইনে ঘাটাইলের ইউএনও আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীনকে নিয়ে সংবাদটি প্রকাশ হলে এলাকায় তোলপাড় ও সংবাদটি টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়। ঘাটাইলের সচেতন মহল ঘটনাটি সুষ্ঠু তদন্ত করে তাকে অপসারণ ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয় । এ বিষয়ে ইউএনও’র সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.