ব্রেকিং নিউজ :

সখীপুরে জেলা যুবলীগের নেতা অপহরণ তিনঘন্টা পর গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার

 

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু :
টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও জেলা যুবলীগের শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আলমাছ আজাদ অপহরণকারীদের কবলে পড়ে নিজের সব কিছু খুইঁয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন । বুধবার ঢাকা রামপুরা ব্রীজ এলাকায় অপহরণকারীরা তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ৬০ হাজার টাকা, দুটি স্যামসাং মোবাইল সেট (জে-৭, এস-৫), দুটি এটিএম কার্ড জোরপূর্বক আদায় করে নেয় এবং শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রামপুরা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে।
জানাযায়, আলমাছ আজাদ সকাল নয়টার দিকে রামপুরা বাসা থেকে গাজীপুর সাইনবোর্ড এলাকার অফিসে যাওয়ার পথে সশস্ত্র সংঘবদ্ধ একটি অপহরণ চক্র তাকে কর্মস্থলে পৌছে দেওয়ার কথা বলে একটি সাদা মাইক্রোবাসে উঠায়। এরপর তার হাত-পা এবং চোখ বেঁধে গলায় ছুরি ও পিস্তল ঠেকিয়ে সঙ্গে থাকা মানি ব্যাগ, মোবাইল সেট নিয়ে নেয়। আরও টাকার দাবিতে তাকে শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। ৫ লাখ টাকা যেন অতি সত্বর পরিবারের পক্ষ থেকে পাঠানো হয় এ চাপ দিতে থাকে। পারিবারিকভাবে অসচ্ছল এবং চাকরি ছাড়া তাঁর আর কিছুই নেই এ কথা বললে এক পর্যায়ে তারা ৫০ হাজার টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে বললে তারা আলমাছ আজাদের চোখ খোলে দেয়। পরে সে বাসায় স্ত্রীর নিকট ফোন করে ৫০ হাজার টাকা তাদের ক্যাশে পৌছে দিলে বেলা পৌনে একটার দিকে চট্রগ্রাম রোডের জাজর এলাকায় তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে চলে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উত্তরা একটি হাসপাতালে ভর্তি করে।
আলমাছ জানায়, নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে সৃষ্টিকর্তা আমাকে রক্ষা করেছেন। তবে তিনি এ ঘটনাকে পূর্ব পরিকল্পিত বলে ধারনা করছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.