ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

টাঙ্গাইলের ১১ ইউপিতে ভোট গ্রহণ চলছে

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক:

টাঙ্গাইলের ১১ ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোট গ্রহণ বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলবে। নির্বাচন সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ করতে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় ৩ টি ইউপিতে এবং একটি ওয়ার্ড নির্বাচন এবং মধুপুরের ৮ টি ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে ১১ প্লাটুন বিজিবি, প্রায় ১ হাজার পুলিশ এবং আনসার এবং প্রতিটি ইউনিয়নে র‌্যাবের ১ টি করে টিম কাজ করছে।

এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্টেট ১২ জন এবং জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট ৪ জন দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া ১১টি মোবাইল টিম এবং ৬ স্ট্রাইকিং ফোর্সও মোতায়েত করা হয়েছে। নির্বাচনে ৪৫জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার :

ছিলিমপুর : এ ইউপিতে ৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৫ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৬ হাজার ১৮০ জন। মোট ভোট কক্ষ ৪১ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

কাতুলী : এ ইউপিতে ৫ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০ জন এবং সাধারণ সদস্য ৫৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ২০ হাজার ৯০৯ জন। মোট ভোট কক্ষ ৫৪ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

মাহমুদনগর : এ ইউপিতে ৫ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০ জন এবং সাধারণ সদস্য ৫৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৩ হাজার ২৭৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩৭জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

মধুপুর উপজেলা :

মহিষমারা : এ ইউপিতে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১১ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৭ হাজার ৫৫৯ জন। মোট ভোট কক্ষ ৪৪ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

অরণখোলা : এ ইউপিতে ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৮জন এবং সাধারণ সদস্য ৩২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৪ হাজার ৩৬ জন। মোট ভোট কক্ষ জন ৩৫ এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

শোলাকুড়ি : এ ইউপিতে ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৮ জন এবং সাধারণ সদস্য ২৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৩ হাজার ১৫ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩২ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

কুড়ালিয়া : এ ইউপিতে ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১২ হাজার ৭৮০ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩২ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

আইশনারা: এ ইউপিতে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১২ হাজার ৭৯০ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩২ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

কুড়াগাছা : এ ইউপিতে ২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৮ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১৬ হাজার ২১৪ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩৯ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

বেরিবাইদ : এ ইউপিতে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৯ জন এবং সাধারণ সদস্য ৩৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১২ হাজার ৪০৬ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩০ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

ফুলবাগচালা : এ ইউপিতে ৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন এবং সাধারণ সদস্য ২৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ১০ হাজার ৯৩৫ জন। মোট ভোট কক্ষ ২৬ জন এবং ভোট কেন্দ্র ৯ জন।

এ বিষয়ে কথা হয় জেলা নির্বাচন অফিসার তাজুল ইসলামের সাথে। তিনি বলেন, সকাল থেকেই সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। নির্বাচতে প্রতিটি সাধারণ কেন্দ্রে পুলিশ ৭ জন এবং আনসার ১৪ জন, গুরুত্বপূণ কেন্দ্রে পুলিশ ১০ জন এবং আনসার ১৪ জন করে দায়িত্ব পালন করছে। এছাড়া কেন্দ্রের বাইরে মোবাইল টিম এবং স্ট্রাইকিং ফোর্স দায়িত্ব পালন করছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.