ব্রেকিং নিউজ :

প্রকাশিত সংবাদের সংশোধন

 

গত ১০ জুলাই তারিখে টাঙ্গাইল অন্যতম অনলাইন সংবাদ মাধ্যম ‘নিউজ টাঙ্গাইল’ পত্রিকায় “সখীপুরের যাদবপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিস দুর্নীতির আখড়া” শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটিতে ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তার দুর্নীতির কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়। মূলত আলেয়া আক্তার, আবু রায়হান ও হাজী লুৎফর রহমান খানের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই ওই প্রতিবেদনটি করা হয়েছিল। পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জানা যায় তাদের দেয়া তথ্যগুলো সঠিক ছিলনা। প্রতিবেদনে উল্লেখিত জুয়েল খান ও শওকত আলী এ বিষয়ে তাদের লিখিত বক্তব্যে জানান, তাঁরা অতিরিক্ত টাকা পয়সা দিয়ে কোন খারিজ করেননি এবং নির্ধারিত সময়েই তারা খারিজ পেয়েছেন।
এছাড়া উচ্ছেদের বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরিফা সিদ্দিকা জানান, হতেয়া মাওলানাপাড়া যে উচ্ছেদ কার্যক্রম করা হয়েছিল তা আদালতের নির্দেশে হয়েছিল।এখানে তাকে ভুল বুঝানোর কোন সুযোগ নেই। বরং আলেয়া আক্তার,আবু রায়হান উক্ত উচ্ছেদকৃত ভূমি অবৈধ বন্দোবস্ত পাওয়ার লোভে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সার্ভেয়ারকে বিবাদী করে মামলা করে তাদের হয়রানি করছে। তিনি আরও বলেন, হাজী লুৎফর রহমানের জমিটি সরকারি খাস জমি হওয়ায় তাকে উচ্ছেদের নোটিশ পাঠানো হয়েছে।
এছাড়াও আলেয়া আক্তার, রায়হান ও হাজী লুৎফর রহমান খান উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার ও নায়েবকে হয়রানি করার উদ্দেশে দুদক,ভূমি মন্ত্রণালয়, বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। তাদের দেওয়া ভুল তথ্যের ভিত্তিতে সংবাদটি প্রকাশিত করায় যাদবপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.