মাভাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে ড. শাহীন সভাপতি ও ড. ইকবাল সাধারণ সম্পাদক

 

সাইফুল মজুমদার, মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি: মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতির নির্বাচন গত ২৫ জুলাই ২০১৭ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ড. মুহাম্মদ শাহীন উদ্দিন ৬১ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী অধ্যাপক ড. মো. সিরাজুল ইসলাম পেয়েছেন ৫৩ ভোট। ড. মো. ইকবাল মাহমুদ ৪৯ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ড. মোহাম্মদ মতিউর রহমান এবং মুহাম্মদ আবুল কাশেম লিটন উভয়ই ৪১ ভোট পেয়েছেন। সহ-সভাপতি পদে মো. মুছা মিয়া ৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ড. মীর মো.মোজাম্মেল হক পেয়েছেন ৫১ ভোট ।
কোষাধ্যক্ষ পদে ধনেশ্বর চন্দ্র সরকার ৫৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী মো. বদরুল আলম মিয়া য়েছেন ৪২ ভোট। যুগ্ম-সম্পাদক পদে মো. নাজমুল ইসলাম ৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী সৈয়দ মুহিবুল হোসেন পেয়েছেন ৪২ ভোট। দপ্তর সম্পাদক পদে মো. ইসতিয়াক আহমেদ তালুকদার ৮৮ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী মো. মিজানুর রহমান পেয়েছেন ৪০ ভোট। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে মুহাম্মদ রবিউল ইসলাম লিটন ৮৫ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী নিশাত কুমার কুন্ডু পেয়েছেন ৪৬। শিক্ষা ও গবেষনা সম্পাদক পদে মো.নান্নুর রহমান ৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ড. মো. জহিরুল ইসলাম পেয়েছেন ৪৮ভোট। সাংস্কৃতিক ও সমাজ কল্যান সম্পাদক পদে নাসরিন জাহান ৮৪ পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী রুখসানা সিদ্দীকা পেয়েছেন ৪৬ ভোট। নির্বাহী সদস্য পদে নির্বাচিত হয়েছেন: ১. আলী নেওয়াজ বাহার ২. আব্দুল গাফ্ফার খান ৩. মুনমুন বিনতে আজিজ ৪. ড. মো. জয়নুল আবেদীন ৫. আবু জাফর শিবলী ৬. মাহমুদা বিনতে লতিফ ।
নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক ড. মোঃ ইউনুছ মিয়া। নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ড. মোঃ আনিসুর রহমান আনিছ ও ড. মোঃ মাসুম হায়দার।
উল্লেখ্য, নির্বাচনে ‘‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী প্যানেল’’, ‘‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শাহীন-লিটন প্যানেল’’ এবং ‘‘স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক প্যানেল’’ এ তিনটি প্যানেল থেকে ১৫টি পদের বিপরীতে মোট ৩২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী প্যানেল থেকে সাধারন সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ, সাংস্কৃতিক ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক এবং একজন নির্বাহী সদস্যসহ মোট চারজন নির্বাচিত হন এবং সভাপতি ও সহ-সভাপতিসহ ১১ টি পদে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শাহীন-লিটন প্যানেল থেকে নির্বাচিত হন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.