ব্রেকিং নিউজ :

সখীপুরে শীতের প্রারম্বেই খেজুর গাছ কাটায় ব্যস্ত গাছিরা

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু : টাঙ্গাইলের সখীপুরে শীতের প্রারম্বেই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন গাছিরা। ভোরের ঘুম ভাঙা সকাল এখন কুয়াশায় মাখামাখি। খেজুরের গাছগুলিতে হাঁড়ি ঝুলিয়ে তা থেকে রস সংগ্রহ শুরু করেছেন গাছিরা। তাঁরা বলছেন, শীত তড়িঘড়ি চলে আসায় রসও হাঁড়িতে পড়ছে। রসের হাঁড়ি দ্রুতই ভরে যাচ্ছে। এদিকে উপজেলায় ইটভাটায় জ্বালানির দাপটে খেজুর গাছ কেটে অনেকটাই সাবাড় হয়ে গেলেও যা আছে, তা ৮ ইউনিয়ন ও পৌরএলাকার মানুষকে খুশি করার পক্ষে কম নয়।

টাঙ্গাইলের সখীপুর বাংলাদেশের কৃষিপ্রধান অঞ্চল হিসাবে সমাদৃত। উপজেলার যাদবপুর, বেড়বাড়ী, রতনপুর, পাহাড়কাঞ্চনপুর, দেওবাড়ি, দাড়িয়াপুর, বেতুয়া, তক্তারচালা, বহুরিয়া, কালিদাস, কাকড়াজান, কালমেঘা, ইছাদিগী, কচুয়া, বড়চুনা, কুতুবপুর, বেতুয়া, পাথারপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের কয়েক হাজার খেজুর গাছ রয়েছে। সরেজমিন বেশ কয়েকটি এলাকায় গিয়ে দেখা গেল, গাছ ঝাড়ার ধুম পড়েছে অনেকগুলো গাছে রসের হাড়ি ঝুলছে।

উপজেলার যাদবপুর গ্রামের বাসিন্দা রস বিক্রেতা মজিবর রহমান ও আবদুর রহিম মিয়া জানান, ইতোমধ্যেই আমাদের মত সকল গাছিরাই একেক জন অন্তত ৫০ থেকে ১’শ খেজুর গাছ কেটে রস সংগ্রহ শুরু করেছেন। তাঁরা আরো জানান, একটা খেজুর গাছ তিনবার কাটার পরে তাতে নলি লাগিয়ে রসের জন্য ভাঁড় পাতা হয়। একটা খেজুর গাছ থেকে দিনে দু’বারও রস মেলে। ভোরের রসকে মিষ্টি এবং বিকেলের রসকে তারি বলে। মাঘ মাস থেকে রস পড়া কমতে শুরু করে। ওই সময়ে রসের ঘনত্বও অনেক বেড়ে যায়। রস জাল দিয়ে যে গুড় আমরা বানিয়ে থাকি তা বাজারের সর্ব্বোচ্চ বাজার মূল্যে বিক্রি করা হয়। সখীপুরসহ জেলা শহর থেকে বহু লোক খেজুর গুড়ের জন্য আমাদের আগে থেকেই অর্ডার দিয়ে থাকেন।

স্থানীয়রা জানান, অতীতে উপজেলার সর্বত্র বহু খেজুর গাছ ছিল। ইটভাটায় জ্বালনি হিসাবে অনেক গাছ বিক্রি করা হয়েছে । রস মৌসুমে প্রতিটি খেজুর গাছ ভাড়া হয় ২/৩ শ’ টাকায়। মৌসুমের শেষে অনেকেই গাছা বিক্রি করে দেন ।

একাধিক খেজুর গাছের মালিক জানান, শীত এসে পড়ায় রস সংগ্রহকারীদের চাহিদা বেড়েছে । রসেরও দাম ভাল। চলতি মৌসুমে এক একটি খেজুর গাছ থেকে ২০-২৫ কেজি রস পাওয়া যাচ্ছে। সপ্তাহে একদিন গাছ কাটা হলে তিন দিন রস পাওয়া যাচ্ছে।

রসপায়ীরা জানান, শীতের সকালে ঠান্ডায় কাঁপতে কাঁপতে খেজুর রস খাওয়ার মজাই আলাদা।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা ফায়জুল ইসলাম ভূইয়া বলেন, শীতের মৌসুমে খেজুরের রস বাঙালীদের ঐতিহ্য। প্রতি বছর এ সময় গাছিরা খেজুরের রস সংগ্রহ করে কাচা রস আবার অনেকে গুড় বানিয়ে বিক্রি করে থাকেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.