সন্তানদের অনার্স পর্যন্ত মোবাইল দেবেন না

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বি মিয়া বলেছেন, ‘আপনারা আপনাদের সন্তানদের অন্তত অনার্স ক্লাস পর্যন্ত মোবাইল ফোন দিবেন না। এতে শিক্ষার্থীরা নষ্ট হয়ে যায়।

আর আপনার যা পারেন, আমরা কিন্তু তা পারি না। ’ শনিবার দুপুরে নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এএম উচ্চ বিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে দেশের সব মায়েদের প্রতি এ আহ্বান জানান তিনি।

তিনি নেপোলিয়ানের একটি উক্তি উল্লেখ করে বলেন, ‘তোমরা আমাকে একটা শিক্ষিত মা দাও, আমি একটি শিক্ষিত জাতি দেব। দেখেন আপনারা পারেন, আমরা কিন্তু পারি না। এখন আমরা সবাই রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত। আমাদের চেয়ে মায়েরাই তার সন্তানের বেশি খবর রাখেন। আবার আমাদের মায়েদের কারণেই সন্তানরা নষ্ট হয়ে যায়। সেই দিকেই খেয়াল রেখে বলতে চাই, যতক্ষণ পর্যন্ত আপনার সন্তান অন্তত অনার্স ক্লাসে ভর্তি না হয়েছে ততক্ষণ পর্যন্ত তাকে মোবাইল ফোন কিনে দিবেন না।

ফজলে রাব্বি মিয়া বলেন, ‘শিক্ষক সম্পর্কে যখন আমাদের কাছে প্রশ্ন আসে তখন আমাদের লজ্জা লাগে।

যখন শুনি প্রশ্নপত্র ফাঁসের জন্য শিক্ষকরাই দায়ী, তখন নিজেকে খুব হেও প্রতিপন্ন মনে করি। লজ্জা লাগে, দুঃখ লাগে। এ জাতি যাবে কোথায়? যে দেশের মানুষ একটি যুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করেছে সেই দেশের শিক্ষকরা একটি দুষ্কর্ম করবে তা ভাবতেও পারছি না। আমরা এও দেখি যখন শিক্ষার্থীদের সবাই ‘এ’ প্লাস পায় কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে গিয়ে মাত্র একজন পাস করে।

এ সময় তিনি হাতিয়া উপজেলাকে জেলা ঘোষণা করার জন্য পরামর্শ দিয়ে বলেন, আমরা চেষ্টা করব।

এ ছাড়াও হাতিয়ার বিদ্যুৎ সমস্যার বিষয়ে ডেপুটি স্পিকার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অনুরোধ করে বলেন, ‘আপনারা যদি প্রশাসনিকভাবে কোথাও কোনো চিঠি পাঠিয়ে থাকেন তার একটা কপি আমাকে দেন। আমি বিষয়টি নিয়ে অবশ্যই সহযোগিতা করব। ’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.