ব্রেকিং নিউজ :

টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির বিদ্রোহী পক্ষের ৫০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক : টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির কার্যালয়ে শুক্রবার ভাঙচুরের ঘটনায় বিদ্রোহী পক্ষের ১৫জনসহ অজ্ঞাত ৩৫জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। রোববার জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল বাদী হয়ে টাঙ্গাইল বিচারিক হাকিম আদালতে এই মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলায় জেলা বিএনপির বহিষ্কৃত সহসভাপতি আলী ইমাম তপন ও হাসানুজ্জামিল শাহীন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক কাজী শফিকুর রহমান লিটন, বহিষ্কৃত যুগ্ম সম্পাদক খন্দকার আহমেদুল হক শাতিল, ছাত্রদল নেতা তারেকুল ইসলাম ঝলক ও তৌহিদুল ইসলাম বাবু, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম স্বপন, সরকারি সাদত কলেজের সাবেক জিএস সৈয়দ আব্দুল মান্নান বাবুল, সাবেক পৌর কমিশনার মোমিনুল হক খান নিক্সনসহ ১৫জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আরও ৩৫জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে জেলা বিএনপি অফিস ভাংচুর, অফিসে রক্ষিত টাকা, মাইক, ইন্টারনেট ও রাউডার চুরি এবং ভাঙচুরের অভিযোগ আনা হয়েছে।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল জানান, ঘটনার দিনই তারা থানায় মামলা করতে গিয়েছিলেন কিন্তু থানা কর্তৃপক্ষ মামলা না নেয়ায় আদালতে মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মে কেন্দ্র থেকে জেলা বিএনপির ৩০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে শামসুল আলম তোফাকে সভাপতি এবং ফরহাদ ইকবালকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। সভাপতি শামসুল আলম আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় কারাবন্দি সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টু এবং যুবদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলাতান সালাউদ্দিন টুকুর বড় ভাই।

বিদ্রোহীদের অভিযোগ, জেলা বিএনপির কমিটিতে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ বেশীর ভাগ পদেই সালাম পিন্টু পরিবারের অনুসারিদের বসানো হয়েছে। সালাম পিন্টু পরিবার বিরোধীরা কমিটি বাতিলের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। এ নিয়ে একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। জেলা বিএনপি দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে বিভিন্ন কর্মসূচিও পালন করছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.