ব্রেকিং নিউজ :

পদ্মাসেতুর সাথে ঢাকার সংযোগে রেল যাচ্ছে মধুখালী-মাগুরায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের দক্ষিণাঞ্চলে মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতুর কাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। সবশেষ এ সেতুতে রেল সংযোগ নতুন সুখবর দিয়েছে। পদ্মা সেতু যেদিন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে, সেদিনই চালু হবে রেল যোগাযোগ। সরকারের এমন প্রত্যাশায় পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগ প্রকল্পের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। এলক্ষ্য আরো দ্রুততমে সময়ে রেল দিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সংযোগ বৃদ্ধি করা।

আর এই ধারাবাহিকতায় সরকার ফরিদপুরের মধুখালী থেকে কামারখালী হয়ে মাগুরা শহর পর্যন্ত ২৩ দশমিক ৯০ কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ করার উদ্যোগ নিয়েছে। মাগুরা জেলায় বাস্তবায়নাধীন পদ্মা সেতুর মাধ্যমে ঢাকা ও দেশের অন্যান্য স্থানের সঙ্গে রেল সংযোগ স্থাপন করতেই এ সংক্রান্ত প্রকল্পটি হাতে নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আজকের সভায় মোট ১৩টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়।

এই রেল নির্মিত হলে পদ্মা সেতুর সঙ্গে সংযুক্ত এই অঞ্চলে বাণিজ্য প্রসার ও অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ উন্নত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

একনেক সভা শেষে প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, মধুখালী থেকে কামারখালী হয়ে মাগুরা পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের মোট প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ১ হাজার ২০২ কোটি টাকা। ২০১৮ সালের মে থেকে ২০২২ সালের এপ্রিলের মধ্যে এ রেলপথ বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রায় ৪৬ বছর আগে ফরিদপুর মধুখালী থেকে কামারখালী পর্যন্ত রেলপথ ছিল। কিন্তু এটা এখন আর ব্যবহার হয় না। তবে কামারখালী থেকে মাগুরা পর্যন্ত কোনো রেলপথ নেই।

প্রকল্পের আওতায় মধুখালী থেকে কামারখালী পর্যন্ত বিদ্যমান রেলপথটি সংস্কার করে ব্রডগেজ এবং কামারখালী থেকে মাগুরা পর্যন্ত নতুন রেললাইন নির্মিত হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.