ব্রেকিং নিউজ
News Tangail

‘স্ত্রীকে যৌনতায় বাধ্য করা যাবে না’

ভারতে ক্রমাগত যৌন নিগ্রহের শিকার হচ্ছেন নারীরা। তাই স্বামীর যৌন ইচ্ছা মেটাতে বাধ্য নন স্ত্রী বলে রায় দিয়েছে ভারতের দিল্লি হাইকোর্ট। দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি গিতা মিত্তাল ও বিচারপতি সি হরি সংকরের একটি যৌথ বেঞ্চ মঙ্গলবার এ মত দেন।

রায়ে আদালত বলেন, বিয়ের ক্ষেত্রে শারীরিক সম্পর্ককে না বলার অধিকার স্বামী-স্ত্রী উভয়েরই রয়েছে। বিয়ের মানে এই নয় যে, স্ত্রীকে সব সময় শারীরিক সম্পর্কের জন্য ইচ্ছুক বা প্রস্তুত থাকতে হবে। স্ত্রী একমত হলেই কেবল এটি হতে পারে। বৈবাহিক ধর্ষণকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা সংক্রান্ত এক শুনানিতে দেশটির আদালত এ রায় দেয়।

ভারতে বিকৃতমনস্ক ও ব্যভিচারি পুরুষদের হাত থেকে নারীকে রক্ষা করতে এর আগে দিল্লি হাইকোর্ট এক মামলার রায়ে জানিয়েছিল, কোন নারীর সম্মতি ছাড়া তাকে স্পর্শ করা যাবে না। নয় বছরের এক নাবালিকাকে শ্লীলতাহানির মামলায় রায়ে ওই আদেশ দিয়েছিল দিল্লি হাইকোর্টে। আদালত তখন আরও জানিয়েছিল, নারীদের শরীর তাদের নিজস্ব। এর উপর শুধু তার অধিকার রয়েছে। বাকিদের সেখানে অনুমতি নেই। সেই নারীর অনুমতি ছাড়া কেউ তার শরীর স্পর্শ করতে পারে না৷ তা সে যেকোন কারণেই হোক না কেন।

এদিকে দেশটিতে পুরুষ অধিকার নিয়ে কাজ করা এনজিও ম্যান ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট এ ধরনের আইন করার বিরোধিতা করে আসছে। তাদের মতে, যৌন সহিংসতা থেকে নারীদের সুরক্ষা প্রচলিত আইনেই রয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.