টাঙ্গাইলে ধর্ষণ থেকে রক্ষা পেলেও বাসচাপায় প্রাণ গেল গৃহবধূ

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দুঃষ্কৃতিকারীদের হাত থেকে রক্ষা পেতে বাসচাপায় প্রাণ গেল নারী পোশাকশ্রমিকের।

বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর বাইপাসের বাওয়ার কুমারজানী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিউলী বেগম মির্জাপুর পৌর এলাকার পুষ্টকামুরী চরপাড়া গ্রামের শরীফ মিয়ার স্ত্রী। তিনি মির্জাপুরের গোড়াই শিল্পাঞ্চলের কম্ফিট কম্পোজিট মিলের কর্মী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, প্রতিদিনের মতো সকাল ৭টার দিকে পোশাককর্মী শিউলী বেগম তার কর্মস্থলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসের জন্য মহাসড়কের চরপাড়ায় অপেক্ষা করছিলেন। কিন্ত কারখানার শ্রমিকদের জন্য নির্ধারিত বাস ছেড়ে যাওয়ায় শিউলী বেগম অন্য একটি বাসে উঠেন। এ সময় যাত্রীবেশী দুঃষ্কৃতিকারীরা শিউলী বেগমের শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। তিনি বাস থেকে নামার চেষ্টা করে চিৎকার করতে থাকেন। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে মহাসড়কের মা সিএনজির পূর্বপাশে বাওয়ার কুমারজানী এলাকায় শিউলী বেগম চলন্ত থেকে পড়ে ওই বাসের চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী বাওয়ার কুমারজানী গ্রামের বাসিন্দা শিউলী বেওয়া জানান, ঘটনার কিছু সময় আগে তিনি ওই চলন্ত বাসে এক মহিলা যাত্রীকে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করতে শুনেছেন। এর কিছুক্ষণ পরেই মহাসড়কের ওই স্থান থেকে অল্প দূরে চলন্ত বাস থেকে পড়া নিহত ওই নারীকে তিনি দেখতে পান।

মির্জাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে নারী পোশাকশ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাইওয়ে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.