News Tangail

টাঙ্গাইলে পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে নিহত ১

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে খুন, ডাকাতি, অস্ত্র, মাদক ও ছিনতাই মামলাসহ ১২ মামলার আসামী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পুষ্টকামুরী চরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নাজমুল (২৮) মির্জাপুর উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের ভাগজান গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে অস্ত্র ও ডাকাতি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী নাজমুলকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে থানায় নিয়ে আসার পথে মহাসড়কের চরপাড়া নামকস্থানে পৌছালে নাজমুলের সহযোগিরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার জন্য পুলিশকে লক্ষ করে গুলি চালায়। এ সময় পুলিশের গাড়িতে থাকা নাজমুল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে পুলিশ তাকে পুনরায় গ্রেফতারা করতে গেলে তাদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলি বিনিময় হয়। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির এক পর্যায়ে নাজমুল গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে অবস্থার অবনতি হলে তাকে গাজীপুরের শেখ ফজিলাতুননেসা মুজিব হাসপাতলে ভর্তি করা হলে বিকেল সোয়া ৩ টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি একেএম মিজানুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহত নাজমুলের নামে খুন, ডাকাতি, অস্ত্র , মাদক ও ছিনতাইসহ মির্জাপুর থানায় ১২টি মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২টি ছুরা, ১টি চাকু ও গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত প্রক্রিয়া চলছে বলে ওসি জানান।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.