ব্রেকিং নিউজ
News Tangail

টাঙ্গাইলে আন্তঃজেলা ও অভ্যন্তরিন সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে আন্তঃজেলা ও অভ্যন্তরিন সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রী ভোগান্তি চরমে। গতকাল শুক্র বার রাত থেকেই কোন রকম ঘোষনা না দিয়েই শ্রমিকরা এই অঘোষিত ধর্মঘটে যায়। ফলে শনিবার সকাল থেকেই টাঙ্গাইলের বিভিন্ন বাস স্ট্যান্ডে যাত্রীদের প্রচন্ড ভিড় জমে যায়।

শনিবার সকালে অফিসগামী যাত্রীরা টাঙ্গাইল নতুন বাসস্ট্যান্ড এসে কোন রকম বাস না পেয়ে চরম হতাশা প্রকাশ করেছে। ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করে কোন রকম বাসের সংবাদ না পেয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছে যাত্রীরা। বিশেষ করে মহিলা ও শিশুদের ভোগান্তি সবচেয়ে বেশী।

ঢাকা-টাঙ্গাইলে চলাচলকারী এসি বাস সকাল-সন্ধা, সোনিয়া পরিবহন, সিটিং সার্ভিস নিরালা, ধলেশ্বরী, ঝটিকা, টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ চলাচলকারী প্রান্তিক সহ উত্তর বঙ্গ ও দক্ষিন বঙ্গে যাতায়াতকারী সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ।

বাস চলছে না, ট্রেনে জায়গা নেই বিকল্প হিসেবে অনেকে হিউম্যান হল্যারে ভেঙে ভেঙ্গে ঢাকা যাচ্ছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। সুযোগ বুঝে ভাড়াও অনেক বেশী নিচ্ছে এই সব হিউম্যান হল্যারের চালকরা।

ঢাকা-টাঙ্গাইলের মধ্যে যাতায়াতকারী “নিরালা” পরিবহনের কাউন্টারের দায়িত্বে থাকা মুক্তার হোসেন জানান, মালিক সমিতির নির্দেশে সকাল থেকেই কাউন্টার খুলে টিকিট বিক্রি করছি। কিন্ত কোন ড্রাইভার আসেনি। ড্রাইভাররা তাকে জানায়, তারা আর কাজ করতে আগ্রহী নয়। মৃত্যু দন্ড মাথায় নিয়ে আর কাজ করবো না, প্রয়োজনে অন্য কাজ করবো। ফলে টিকেট দেওয়া সত্বেও গাড়ী ছাড়ছে না।

টাঙ্গাইল নতুন বাসস্ট্যান্ডে একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র রাজীব এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, সকাল থেকে ঘোরাঘুরি করছি ঢাকায় যাবার জন্য। একবার নতুন বাসস্ট্যান্ডে আসি, একবার ঘারিন্দা রেল স্টেশনে যাই। রেলে জায়গা নেই কোন ভাবেই উঠা যাচ্ছে না। আর এদিকে বাস ছাড়ছে না। ফলে আমি দিশেহারা, কাল আমার সেমিস্টার পরীক্ষা, খুব টেনশনে আছি। যে কোন মূল্যে আমাকে ঢাকায় যেতে হবে। ভুক্তভোগীরা দাবী জানায়, যত দ্রুত সম্ভব এই সমস্যার সমাধান করা হোক।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.