ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

বাংলাদেশকে হারিয়ে ভারতের শিরোপা জয়

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে বাংলাদেশ-ভারতের ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে ভারতের জয়। প্রথমার্ধ গোল শূন্য হলেও বিরতির পর ফিরে দাঁড়ায় ভারত। এক গোল দিয়ে এগিয়ে যায় তারা।

শনিবার (১৮ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টায় ভুটানের থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হয়। চ্যাম্পিয়নশিপের এ ফাইনাল খেলা সরাসরি দেখানো হয় সময়নিউজ.টিভির এক্সক্লুসিভ লাইভে। টানা দ্বিতীয় শিরোপা জয়ের মিশনে নামলেও সেই মিশন আর জয় করা হল না নারীদের।

কমলাপুরে বাংলাদেশের সোনার মেয়েরা সেদিন ভারতের দম্ভ চূর্ণ করে ঘরে তুলেছিল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের শিরোপা। খেলা শুরুর প্রথমায়ার্ধে কোনো দলই গোল দিতে পারেনি।

২৪ ডিসেম্বর ২০১৭ । কমলাপুরে বাংলাদেশের সোনার মেয়েরা সেদিন ভারতের দম্ভ চূর্ণ করে ঘরে তুলেছিল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের শিরোপা। বছর ঘুরে সে একই মোহনায় দেখা দু’দলের। শুধু পাল্টেছে ভেন্যু। আমূল পরিবর্তন এসেছে মেয়েদের খেলার ধরণেও। ২৩ জনের মধ্যে পারফরমেন্সে মরচে না ধরায় গেল আসরে খেলা ১৮ জনই এবার আছেন দলে। সঙ্গে আছেন ৫ নতুন মুখ। যাদের তিনজনেরই হয়ে গেছে আন্তর্জাতিক অভিষেক।

টানা অনুশীলন আর নিজেদের মধ্যে ভালো বোঝাপড়াই দলটির মূল শক্তি। প্রতিপক্ষ ভারতকে গেল আসরে দু’বার হারানোয় আত্মবিশ্বাস হয়ে গেছে পাহাড় সমান। আসরের তিন ম্যাচ মিলিয়ে ভারতের চেয়ে গোলও বেশি করেছেন বাংলার ফুটবলাররা। সর্বোচ্চ চারটি করে গোল আছে তহুরা ও শামসুন্নাহারের। তাই যুদ্ধ জয়ের দীপ্ত শপথ মেয়েদের চোখেমুখে।

এ মাঠ থেকেই গেল আসরে অল্পের জন্য সাফ অনূর্ধ্ব ১৮ যুব চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা হাতছাড়া করেছিল যুব ফুটবলাররা। তবে, বাংলার উড়ন্ত কিশোরীরা সে পথে হাটতে নারাজ। ম্যাচের আগে কিছটা ক্লান্তি থাকলেও শিরোপা জয় করেই ঘরে ফেরার লক্ষ্য সবার। সম্ভাব্য ৪-৪-২ ফরমেশনেই শিষ্যদের মাঠে নামানোর পরিকল্পনা আছে কোচ ছোটনের।

অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলে, ‘আমাদের লক্ষ্য শিরোপা জয়। আর মাত্র একটি ম্যাচ বাকি। আমরা সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করবো চ্যাম্পিয়ন হতে।’

উল্টো চিত্র ভারতীয় দলে। কমলাপুরে খেলে যাওয়া আগের আসরের মাত্র ৫ জন ফুটবলার নিয়ে এবার এসেছে ভারত। দলে তারুণ্যের সংখ্যাই বেশি। নতুন কোচ ফিরমিন ডিসুজা তারুণ্যের জয়গানেই ভরসা রাখতে চান। মাত্র একমাসের প্রস্তুতি নিয়েই প্রতিশোধের মিশনে এসেছে তারা। গেল আসরের সেরা স্কোরার প্রিয়াঙ্গা দেবির সঙ্গে আভিকা সিঙের মতো অভিজ্ঞরা থাকায় শিরোপা জয় করা সম্ভব বলেই মনে করেন ভারতীয় কোচ ফিরমিন ডি সুজা। তবে, সমীহ করছেন বাংলাদেশকেও।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশকে সমীহ করতেই হবে। ওরা অনেকদিন অনুশীলন করেছে একসঙ্গে। সে তুলনায় আমরা খুব একটা সময় পাইনি। ম্যাচটা তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। তবে, শিরোপা জয় করার ক্ষমতা আমার ফুটবলারের আছে।’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.