ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

টাঙ্গাইলে প্রধান শিক্ষককে মারপিটের ঘটনায় বিদ্যালয়ের সভাপতিকে অপসারণ

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রধান শিক্ষককে মারপিটের ঘটনায় টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নিকরাইল বেগম মমতাজ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি আবু সুফিয়ান মাসুদকে অপসারণ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড (মাউসি)। বোর্ডের পরিদর্শক প্রীতিষ সরকারের স্বাক্ষরিত চিঠিতে তাকে অপসারণ করা হয়। এছাড়াও বিদ্যালয় পরিচালনার স্বার্থে নতুন সভাপতি নির্বাচনের বিষয়টিও উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে।

তথ্যসূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিকরাইল বেগম মমতাজ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেনের সাথে অফিস কক্ষে সভাপতি আবু সুফিয়ান মাসুদের বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকেই শিক্ষকদের বেতন বিলে স্বাক্ষর বন্ধ করে দেন সভাপতি মাসুদ। পরে প্রধান শিক্ষকের আবেদনের প্রেক্ষিতে বেতন বিলে স্বাক্ষর করতে সভাপতিকে চিঠি দেয় শিক্ষাবোর্ড। বোর্ডের চিঠি পেয়েও বেতন বিলে স্বাক্ষর না করায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। সভাপতি মাসুদ কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব প্রদান করেন বোর্ডে। কিন্তু কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব গ্রহনযোগ্য না হওয়ায় ১৬ই আগষ্ট বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রীতিষ সরকারের স্বাক্ষরিত চিঠিতে মাসুদকে সভাপতি পদ থেকে বাতিল করা হয় এবং নতুন সভাপতি নির্বাচন করতে বলা হয়।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেন বলেন, তদন্তে আমাকে শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করার বিষয়টি সত্য প্রমানিত হওয়ায় শিক্ষা বোর্ডে বিদ্যালয়ের স্বার্থে যে ব্যবস্থা গ্রহন করেছে তাতে আমি ও বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকমন্ডলী বোর্ডের কাছে কৃতজ্ঞ।

সভাপতি আবু সুফিয়ান মাসুদ বলেন, ডাকযোগে এ সংক্রান্ত কোন চিঠি আমি হাতে পাইনি। চিঠি হাতে পেলে পরবর্তীতে আইনগত কি ব্যবস্থা গ্রহন করা যায় তা ভেবে দেখবো।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.