ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

স্কুলে না যাওয়ায় দুই ছাত্রীকে পেটালেন প্রধান শিক্ষক

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের মহিষাডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শংকর কুমার গাইনের বিরুদ্ধে দুই ছাত্রীকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে। মারপিটের শিকার খাদিজা ও রাবেয়া সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী।

স্কুলছাত্রী খাদিজা খাতুন ও রাবেয়া খাতুন জানায়, ১০ সেপ্টেম্বর তারা বিদ্যালয়ে যায়নি। পরদিন ১১ সেপ্টেম্বর বিদ্যালয়ে যাওয়ার পর প্রধান শিক্ষক শংকর কুমার গাইন পিওন কার্তিককে দিয়ে অফিস কক্ষে ডেকে নেন। এরপর বিদ্যালয়ে না আসার কারণ জিজ্ঞেস করেন। একপর্যায়ে বেত দিয়ে মারপিট শুরু করেন। চিৎকার করতে থাকলে সহকারী শিক্ষক চিত্তরঞ্জন প্রধান শিক্ষকের হাত থেকে বেত কেড়ে নেন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শংকর কুমার গাইন বলেন, ছাত্রী দুটি বিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করছে। বিদ্যালয়ের ইউনিফর্ম পরে রাস্তায় আপত্তিকর অবস্থায় ছিল। তাদের পিতামাতাকে ঘটনাটি জানানো হলেও তারা বিদ্যালয়ে আসেননি। মারপিট করে তাদের সংশোধনের চেষ্টা করেছি।

ঘটনাটি শুনেছি জানিয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বাকী বিল্লাহ বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.