News Tangail

দ্রুত ফিরতে মরিয়া তামিমের নতুন লড়াই

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে বাহাতে হাতের ইনজুরিতে পড়া তামিম ইকবালের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ইংল্যান্ডের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্রাথমিকভাবে তিন সপ্তাহের রিহ্যাভ করছেন তিনি। এই সময়ে সন্তোষজনক উন্নতি হলেই শুরু হবে তার ব্যাটিং অনুশীলন।

এশিয়া কাপে থেকে চোট নিয়ে দেশে ফেরার পর তামিম উড়ে যান ইংল্যান্ডে। সেখান থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এসেছেন তিনি। তার পরামর্শ অনুযায়ী তামিমের পুরো পুনর্বাসন প্রক্রিয়া সাজিয়েছেন বিসিবির চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ চৌধুরী।

বুধবার মিরপুরে জিমে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটান তামিম। চালিয়েছেন হালকা ফিটনেস ট্রেনিং ও হাতের থেরাপি।

তামিমের হাতের সব হালনাগাদ পরে সাংবাদিকদের জানান ডা. দেবাশীষ, ‘ওর হাতের সমস্যা নিয়ে ইংল্যান্ডের সাউথাম্পটনের হ্যান্ড সার্জনের সঙ্গে দেখা করেছে, উনার পরামর্শ অনুযায়ী আমরা রিহ্যাভ প্লান ঠিক করেছি। এখন আমাদের ফিজিও থেরাপিস্টরাই কাজ করছে, সেই গাইডলাইন অনুসরণ করছে।’

১৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের দিনই সুরাঙ্গা লাকমালের বলের আঘাতে বা হাতে একাধিক জায়গায় চিড় ধরে তামিমের। সেই অবস্থায় ওইদিন শেষ দিকে এক হাতে ব্যাট করে আলোচিত হয়েছিল এই ওপেনার। দুবাইতে জার্মান চিকিৎসককে দেখিয়ে তার দুদিন পরই দেশে ফেরেন তামিম। ঝুঁকি এড়াতে উড়ে যান ইংল্যান্ডে।
চোটের সময় থেকে অন্তত চার-পাঁচ সপ্তাহের একটা রিহ্যাভ প্রক্রিয়া ছিল। তার মধ্যে কিছু দিন চলে যাওয়ায় আরও সপ্তাহ তিনেক চলবে এভাবেই।

তারপর পর্যবেক্ষণ করে নেওয়া হবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত, ‘আগামী সপ্তাহ তিনেকের মতো এভাবেই চালানোর পরিকল্পনা করেছি। ২০ অথবা ২৫ তারিখের দিকে ওকে আমরা আবার পর্যবেক্ষণ করব। এসেসমেন্টের পরে দেখা যদি যায় ওর হাতের ফাংশনালিটি পুরো ফিরে এসেছে তাহলে ক্রিকেট এক্টিভিটি শুরু করব। আর যদি দেখা যায় উন্নতি সন্তোষজনক নয় তখন হয়ত আবার রিভিউ করতে হবে। আপাতত সপ্তাহ তিনেকের মতো সময় লাগবে প্রাথমিক রিহ্যাভ সম্পন্ন করতে।’

তিন সপ্তাহের পর্যবেক্ষণে থাকায় তামিম নিশ্চিতভাবে মিস করবেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। টেস্ট সিরিজে তাকে পাওয়া যাবে কিনা তাও নির্ভর করছে পরিস্থিতির উপর।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.