News Tangail

সখীপুরে আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে   সাত দিন ধরে হত্যা মামলার স্বাক্ষী নিখোঁজ

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু: টাঙ্গাইলের সখীপুরে অধ্যক্ষ জামাল হোসেন ঠান্ডু হত্যা মামলার অন্যতম স্বাক্ষী আবুল হাশেম (৪০) আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে গত সাত দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। গত ২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার টাঙ্গাইল আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। হাশেম উপজেলার গোবরচাকা-কাজিরামপুর গ্রামের মৃত হাছেন আলীর ছেলে। এ ঘটনায় সখীপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, হাশেম আলী পলাশতলী মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ জামাল হোসেন ঠান্ডু হত্যা মামলার ৩ নম্বর স্বাক্ষী ছিলেন। সেই সুবাধে তাকে হেয় করতে ওই মামলার প্রধান আসামী মালেক মিয়ার স্ত্রী হাশেম আলীসহ আরও ৭ জনকে আসামী করে সখীপুর থানায় ২০১১ সালে ঘর-বাড়ি পোড়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার হাজিরা দিতে গত ০২ সেপ্টেম্বর হাশেম আলী বাড়ি থেকে টাঙ্গাইল দায়রা জজ আদালতে উদ্দেশ্যে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরেনি।

এ বিষয়ে আবুল হাশেম মিয়ার বড় ভাই আবুল কাশেম বলেন, আমার ভাই একজন সহজ-সরল লোক। তাকে মিথ্যা একটি মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। ওই মামলায় হাজিরা দিতে যায় সে। এরপর থেকে গত ৭ দিন ধরে সে নিখোঁজ রয়েছেন ।

স্থানীয় হায়দার আলী বলেন, ২০১১ সালে বাড়ি পোড়ার মামলায় ৭ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেয় পুলিশ। মামলার আসামীরা হলেন, চুন্নু মিয়া, লেবু মিয়া, বাহাদুর দেওয়ান, হুমায়ুন সিকদার, নুর-ই আজম, আবুল হাশেম হুমায়ুন আহম্মেদ এবং ফারুক হোসেন। এদের বাড়ি কাকড়াজান ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে।

এ নিয়ে ওই মামলার বাদি ফাতেমা আক্তারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস.এম তুহিন আলী বলেন, আবুল হাসেম নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। নিখোঁজ ব্যাক্তির সন্ধ্যানে কাজ করছে পুলিশ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.