ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

জিম্বাবুয়ে সিরিজে একটিমাত্র নতুন মুখ ফজলে রাব্বি

বেশ কয়েকদিন ধরেই ক্রিকেটাঙ্গনে আলোচিত বিষয় নিঃসন্দেহে সাকিব আল হাসানের আঙ্গুলের ইনজুরি। পাশাপাশি আলোচনায় ছিল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে স্কোয়াড। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুটা ছিল একটি চমক নিয়ে। কারণ, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিজেই জানিয়েছেন, জিম্বাবুয়ে সিরিজে পরীক্ষা-নীরিক্ষা করা হবে। সেই পরীক্ষা-নীরিক্ষার সুযোগে জাতীয় দলে ঢুকে যেতে পারেন কোনো এক নতুন মুখ।

কে সে নতুন মুখ? আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন বেশ কয়েকজন। একজন ওপেনারের খুব প্রয়োজন। কারণ তামিম ইকবাল নেই। সে কারণে রাজশাহীর ওপেনার মিজানুর, সাদমান ইসলাম নাকি ফজলে রাব্বি? শেষ পর্যন্ত জানা গেলো সেই নতুন মুখটির নাম। তিনি হচ্ছেন ব্যাটসম্যান এবং বাঁ-হাতি অর্থোডক্স স্পিনার ফজলে রাব্বি। জাতীয় ক্রিকেট লিগে বরিশাল বিভাগের হয়ে খেলছেন তিনি।

এশিয়া কাপের জন্য শুরুতে ঘোষিত ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দলে ছিলেন ফজলে রাব্বি। দলের সঙ্গে ওই সময় অনুশীলন ক্যাম্পও করেছিলেন তিনি। এশিয়া কাপের দলে সুযোগ না পেলেও, এবার সাকিব-তামিমের অনুপস্থিতিতে জাতীয় দলে সুযোগটা মিলে গেলো ৩০ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।

জিম্বাবুয়ে সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। এশিয়া কাপে যারপরনাই ব্যর্থতার কারণে জিম্বাবুয়ে সিরিজে সুযোগ মিললো না তার। দলে জায়গা পেলেন না সৌম্য সরকারও। এশিয়া কাপের মাঝপথে দেশ থেকে উড়িয়ে নেয়া হয়েছিল সৌম্য সরকার এবং ইমরুল কায়েসকে। ইমরুল আফগানিস্তানের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে নিজের সামথ্যের প্রমাণ রাখেন। যে কারণে ইমরুলকে রাখা হয়েছে ১৫ সদস্যের দলে। কিন্তু এনসিএলে সেঞ্চুরি করেও নিজের জায়গাটা ধরে রাখতে পারলেন না সৌম্য।

এশিয়া কাপে তামিমের ইনজুরির কারণে অভিষেক হওয়া ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত এবারও দলে থাকলেন। এশিয়া কাপে খারাপ খেললেও চলতি এনসিএলের দ্বিতীয় রাউন্ডে এসে ১৭৩ রানের ইনিংস খেলে নিজের জায়গাটা ধরে রাখতে পারলেন তিনি।

দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ফিরেছেন পেস অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন। সর্বশেষ গত ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিলেটে টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন সাইফ। এনসিএলে ভালো খেলার কারণে এবার আবারো দলে ফিরলেন তিনি। আরিফুল হককে বাদ দেয়ার গুঞ্জন ছিল। কিন্তু এবারও জায়গা ধরে রাখলেন তিনি।

প্রসঙ্গত : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে ২১ অক্টোবর, মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। পরের দুই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ২৪ ও ২৬ অক্টোবর।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৫ সদস্যের বাংলাদেশ দল 
মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ সাঈফউদ্দিন ও ফজলে রাব্বি মাহমুদ।

Please follow and like us:
error0
fb-share-icon20
Tweet 20
fb-share-icon20

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial