ব্রেকিং নিউজ :
News Tangail

টাঙ্গাইলে প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অর্থ আত্নসাতের অভিযোগ

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার ২০ নং এলেঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সুপর্ণা ভৌমিকের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের পুরাতন বাউন্ডারি ওয়াল ভেঙ্গে বিক্রিত অর্থ আত্নসাতের অভিযোগ ওঠেছে।

স্থানীয়রা জানান, ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে কালিহাতী উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ন্যায় এলেঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টিও শিক্ষা মন্ত্রণালয় টেন্ডারের আহবান করে। এ খবরটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সুপর্ণা ভৌমিক জানতে পেরে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির কতিপয় সদস্যদের যোগসাজসে পূর্বেকার বাউন্ডারি ওয়ালটি সুকৌশলে অপসারন করে বাউন্ডারির সরঞ্জামাদি অন্যত্র বিক্রি করে তার সমুদয় অর্থ তারা আত্নসাৎ করেন। বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওই বিদ্যালয়ে নতুন বাউন্ডারি নির্মিত হলেও অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি পুরাতন বাউন্ডারি ওয়ালের ধ্বংসাবশেষ। প্রকাশ্য যে, ২০০৬ সালে প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে সুপর্না ভৌমিক ওই বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে বিভিন্ন অনিয়ম, দূর্নীতি, প্রতিষ্ঠানে অনিয়মিত, স্বেচ্ছাচারিতার কারণে শিক্ষার্থী, স্থানীয় লোকজন ও অভিভাবকরা ক্ষোভে ফুসে ফেপে উঠেছেন।

এ বিষয়ে ২০ নং এলেঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সুপর্না ভৌমিক সাংবাদিকদের বলেন, দেয়ালটি পূর্ব থেকে জরাজীর্ণ অবস্থায় ছিল। শিক্ষা মন্ত্রণালয় নতুন বরাদ্দ দেয়ায় পূর্বের পুরাতন দেয়ালটি আমরা রাখি নাই। তবে আমরা বিষয়টি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী পরিদর্শককে মৌখিকভাবে জানিয়েছি। এমনকি পুরাতন বাউন্ডারি ওয়ালের বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের মাধ্যমে রেজুলেশন করে আমরা উপজেলা শিক্ষা অফিসে প্রেরণ করেছি। তবে ওই রেজুলেশনটি দেখতে চাইলে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন।

কালিহাতী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা লুৎফর রহমানের মোবাইলে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.