News Tangail

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডপ্রধানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

আদিকাল থেকেই নারীরা যৌন নিগ্রহের শিকার হয়ে আসছেন। তবে লজ্জার কারণে অনেকেই মুখ খুলেননি। তবে সম্প্রতি যৌন নিগ্রহের শিকার হওয়া নারীরা যাতে নিজেদের নিগ্রহের কথাগুলো অকপটে স্বীকার করতে পারেন সে জন্য ভারতের প্লেব্যাক গায়িকা চিন্ময়ী শ্রীপদ টুইটারে ‘হ্যাশট্যাগ মিটু’ আন্দোলনে সোচ্চার হচ্ছেন।

যৌন হেনস্তা হওয়া নারীরা টুইটারে সেই ঘটনা জানাচ্ছেন চিন্ময়ীকে তিনি তা প্রকাশ করছেন।

আর সেই ‘হ্যাশট্যাগ মিটু’তে ফেঁসে যাচ্ছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রধান নির্বাহী রাহুল জহুরি। তার বিরুদ্ধে উঠেছে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন এক নারী।

হারনিধ কওর নামে এক ভারতীয় নারী রাহুলের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলেন। ভুক্তভোগী নারী নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একাধিক স্ক্রিনশটও পোস্ট করেন। যেখানে ২০১৬ সাল থেকে বিসিসিআইয়ের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নেয়া রাহুলের বিরুদ্ধে প্রমাণ পাওয়া যায়।

চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে হারনিধের থেকে সুযোগ নিয়েছেন রাহুল। জানা যায়, ডিসকভারি চ্যানেলে একই সঙ্গে কাজ করতেন রাহুল ও হারনিধ। পরবর্তীতে এক পার্টিতে দুজনের দেখা হলে, আরও ভালো চাকরির প্রলোভন দেখান রাহুল। তার সঙ্গে কফিতে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানান। কিন্তু হারনিধের অনিচ্ছা থাকলেও তিনি না করতে পারেননি।

রাহুল একপর্যায়ে হারনিধকে তার বাসাতে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানান। টুইটে হারনিধ লেখেন, ‘সেই অভিজ্ঞতা আমাকে এখনও কাঁপিয়ে দেয়। আমি এক বছর পর্যন্ত তা ভুলতে পারিনি। আমি শুধু ভেবেছি, আমি কাকে বলব? কে বিশ্বাস করবে আমার কথা। আমি নিজেকে বুঝিয়েছি, এটা শুধুই নিজের কাছে রাখতে হবে। এখন আমি একটা পথে পেয়েছি। একজন হলেও শুনবে আমার কথা।’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.