News Tangail

টাঙ্গাইলে শীতের সবজিতে বাজার সয়লাব

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের বাজারগুলোতে শীতকালীন সবজিতে বাজার সয়লাব। সরবরাহ বেশি থাকায় বাজারে আসা শীতের সবজির দাম অনেক কম। ফলে সব শ্রেণির ক্রেতারা চাহিদানুযায়ী সস্তায় সবজি কিনতে পারছেন।

টাঙ্গাইল শহরের পার্কবাজার, পাঁচআনী বাজার, ছয়আনী বাজার, আমিন বাজার(গোডাউন বাজার), সাবালিয়া বাজার, নতুন বাস টার্মিনাল বাজার, বটতলা বাজার, বউ বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ফুলকপি প্রতিকেজি ২৫-৩৫ টাকা, বাধাকপি ২০-৩০ টাকা, বড়বটি ৩০-৪০ টাকা, লাল শাক ২০-২৫ টাকা, টমেটো(বিদেশি) ৮০-১০০ টাকা, টমেটো(দেশি) ৫০-৭০ টাকা, গাজর(বিদেশি) ৮০-১১০টাকা, গাজর (দেশি) ৭০-৯০ টাকা, পালং শাক ৩০-৪০ টাকা, ধনে পাতা ৫০-৬০ টাকা, শিম ৪০-৬০ টাকা, লাউ ৫০-৬৫ টাকা, শশা ৩০-৪০ টাকা, মূলা ২৫-৩৫ টাকা, ঢেড়স ৪০-৫০ টাকা, ঝিঁঙ্গে ৪০-৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০-৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

টাঙ্গাইলের পাইকারী বাজারগুলোতে গিয়ে দেখা যায়, আগাম শীতকালীন সবজিতে গোডাউন সয়লাব। দাম কম থাকায় খুচরা সবজি বিক্রেতারা বেছে বেছে ভাল সবজিগুলো কম দামে কিনে নিচ্ছেন। খুচরা বিক্রেতারা জানান, বছরের এই সময়ে শীতকালীন সবজির দাম সাধারণত নাগালের বাইরে থাকে। কিন্তু এবার আগাম শীতের সবজি বাজারে বেশি আমদানি হওয়ায় দাম ক্রেতার নাগালের মধ্যেই। তারা আরো জানান, দেশের উত্তরাঞ্চল থেকে সাধারণত শীতের সবজি আগে বাজারে আসে। এবার টাঙ্গাইলের কৃষকরাও শীতকালীন সবজির আগাম চাষ করায় সেগুলো বাজারে ওঠেছে। ফলে সবজিতে বাজার ভরে গেছে, খুব সস্তায় সব ধরণের ক্রেতারা সহজে সবজি কিনতে পারছে। ভরমৌসুমে সবজির দাম আরো কমতে পারে বলে মনে করছেন তারা।

কয়েকজন ক্রেতা জানান, কাঁচা বাজারে শীতের সবজির দাম অনেকটা নাগালের মধ্যে। এজন্য তারা প্রতিদিনই আগাম শীতের সবজি কিনতে পারছেন।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার সবজি চাষী বিক্রমহাটীর নুরুল ইসলাম, আ. রশিদ, ছামান আলী, মন্টু সরকার, গালা এলাকার সাইফুল, মজিদ মুন্সী, দাইন্যা এলাকার রফিকুল ইসলাম, আব্দুল মজিদ, আব্দুল মান্নান, সবেছ আলী সহ অনেকেই জানান, তারা বেশি দাম পাওয়ার আশায় আগাম শীতের সবজির চাষ করেন। কিন্তু এবার উত্তরাঞ্চল থেকে শীতের আগাম সবজি এসে বাজার সয়লাব হয়েছে। এজন্য তাদের চাষ করা স্থানীয় সবজির দামও অনেক কমে গেছে। এবার শীতকালীন আগাম সবজিতে তারা লাভবান হতে পারবেন না। কেউ কেউ মনে করেন, সবজি চাষের স্থলে তারা আগামিতে ধান বা অন্য ফসল লাগাবেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.