টাঙ্গাইলে হত্যা মামলায় ইউপি সদস্য ২ দিনের রিমান্ডে

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায় হত্যাকাণ্ডের ঘটনার আটক ইউপি সদস্য শামসুল হককে আদালত দু’দিনের রিমান্ড দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে হত্যা মামলার ফেরারি আসামি হিসেবে তাকে টাঙ্গাইল জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে ডিবি পুলিশ। আদালত দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে বুধবার (৭ নভেম্বর) দিনগত মধ্য রাতে ডিবি পুলিশ টাঙ্গাইল সদরের রাবনা বাইপাস এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। আসামি শামসুল হক মেম্বার ধনবাড়ী ধোপাখালী ইউপির ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান সদস্য। তিনি কিষ্টপুর গ্রামের হযরত আলীর ছেলে।

মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে ডিবি’র উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ১৭ মে ধনবাড়ী উপজেলার ধোপাখালীর নরিল্যা চড়াবাড়ী গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে ইসমাইল হোসেন (২৮) বাজার থেকে নিখোঁজ হন। পরে ১৯ মে সন্ধ্যায় বাজারের পাশে কলেজের পুকুরে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় পরের দিন ধনবাড়ী থানায় নিহতের ভাই ইব্রাহিম বাদী হয়ে মামলা করেন।

মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়। পরে মামলা ডিবি পুলিশ তদন্তকালে গত ২৫ অক্টোবর গাজীপুর বোর্ড বাজার থেকে ঘটনার পর গা ঢাকা দেওয়া নরিল্যার জনৈক জব্বারের ছেলে নজরুল ইসলামকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি এ ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে কয়েকজনের নাম প্রকাশ করেন।

তার দেওয়া তথ্য মতে ইউপি সদস্য শামসুকে আটক করা হয়েছে। আটক ইউপি সদস্য শামসুকে বিচারিক জ্যেষ্ঠ আদালতে হাজির করে তদন্তের স্বার্থে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালত দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.