ঘাটাইলে বিনা সরিষা-৪ এর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

রেজাউল করিম খান রাজু, ঘাটাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার জামুরিয়া ইউনিয়নের ছুনটিয়া ব্লকের কোনাবাড়ী গ্রামের মাঠে কৃষি সম্প্রসার অধিদপ্তর ঘাটাইল এর আয়োজনে “স্বল্প মেয়াদী ও অধিক ফলনশীল বিনা সরিষা-৪ উৎপাদন” সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের রাজস্ব প্রকল্পের আওতায় প্রদর্শনী গতকাল বুধবার বিকেল এক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ভোজ্য তেলের ঘাটতি ও আমদানী নির্ভরতা কমানোর লক্ষ্যে স্বল্প মেয়াদী, অধিক উৎপাদনশীল বিনা -৪ সরিষার বহুল প্রচার ও চাষীদের মাঝে এর আবাদ কৌশল জনপ্রিয় করাই ছিল এই মাঠ দিবসের মূল উদ্দেশ্য। আশপাশের গ্রামের কয়েকশত চাষীকে মাঠ দিবসের মাধ্যমে একত্র করে প্রর্দশনী প্লটের এই সরিষার চাষাবাদ কৌশল,আন্তঃ পরিচর্যা,ফসলের বাস্তব অবস্থা ইত্যাদি সরেজমিনে দেখানোর মাধ্যমে কৃষকদেরকে এই সরিষার সমস্ত লাভজনক দিক প্রত্যক্ষ করানো হয়। এজন্য চাষিরা খুশি হয় এবং চাষকরার উৎসাহ বোধ করেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো.আব্দুল মতিন বিশ্বাস সভাপতিত্বে মাঠ দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর অতিরিক্ত উপ পরিচালক উদ্ভিদ আবু আদনান । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,টাঙ্গাইল অতিরিক্ত উপরিচালন শস্য রওশন আলম। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,কৃষি সম্পাসারন কর্মকর্তা শামীমা আক্তার,উপসহকারী কৃষিকর্মকর্তা মোছাম্মদ আমেনা,লুফর রহমান খান,নজরুল ইসলাম,সোহেল রানা প্রমুখ।

এই মাঠ দিবসের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত চাষী সমাবেশে বক্তৃতায় বক্তারা বলেন, ভোজ্য তেলের আমদানী নির্ভরতা কমানোর জন্য বাংলাদেশ পরমানু কৃষি গবেষণা ইনষ্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত বিনা সরিষা-৪ চাষীদের মধ্যে আবাদের জন্য সরকার ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহন করেছেন। জেলার প্রত্যেক উপজেলায় এই সরিষার জাত সমূহ আবাদের জন্য চাষীদের মধ্যে প্রর্দশনী প্লটের মাধ্যমে এর বিস্তার ঘটানোর প্রচেষ্টা চলছে। প্রচলিত দেশী জাতের চেয়ে এই জাতগুলি স্বল্প মেয়াদী, অধিক ফলনশীল এবং এই জাতে তেলের হারও বেশী। সরকারের সুদক্ষ নেতৃত্বে, যথাযথ পদক্ষেপে, কৃষি বিভাগের নিরস্তর পরামর্শে এবং আপনাদের অক্লান্ত পরিশ্রমি দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ন। সরকারী ভাবে চেষ্টা চালানো হচ্ছে তেল, ডাল এবং মসলা জাতীয় ফসলে স্বয়ংসম্পন্নতা অর্জন করা । কৃষি বিভাগের পরামর্শ গ্রহণ করে অধিক উৎপাদনশীল জাত সমূহ যথাসময়ে যথাযথভাবে আবাদের মাধ্যমে আমাদের ভাগ্য আমাদেরকেই পরিবর্তন করতে হবে। বাংলাদেশ পরমানু কৃষি গবেষণা ইনষ্টিটিউট নিত্য নতুন ফসলের বিভিন্ন জাত এবং প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে চলেছে যা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ তৃণমূল পর্যায়ে কৃষকদের কাছে পৌছানোর জন্য সর্ববিধ চেষ্টা করছে। চাষীদেরকে নতুন জাত প্রযুক্তি ব্যবহার করে উপকৃত হওয়া এবং দেশের তেল খাদ্য আমদানী করা থেকে রক্ষা করে রপ্তানী মুখী করার উদাত্ত আহ্বান জানান ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে ছুনটিয়া প্লটের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ রুহুল আমিন তিনি বলেন, বিনা-৪ সরিষা স্বল্প মেয়াদী যার জীবনকাল ৮৫ দিন (স্থানীয় জাতের সমান জীবনকাল) কিন্তু ফলন বেশি, বিনা-৪ সরিষা চাষ করে কৃষক অত্যন্ত খুশি, বিনা-৪ জাতের সরিষা আরো ব্যাপক প্রচার প্রসার করার জন্য আমরা কৃষি অফিসের মাধ্যমে এই মাঠ দিবসে আয়োজন করি এবং আগামী বছর আরো ব্যাপক আকারে কৃষক বিনা-৪ জাতের সরিষা চাষ করবে বলে আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.