News Tangail

আশা করি অন্য মানুষ হয়ে ফিরবে সাব্বির : তামিম

তার সঙ্গী সৌম্য সরকার খেলারই সুযোগ পাচ্ছেন না। লিটন দাসের ব্যাটেও রান নেই তেমন। তবুও দুজনই আছেন নিউজিল্যান্ড সফরে। কিন্তু ওয়ানডে আর টেস্ট দলে জায়গা পাননি ইমরুল কায়েস। আর নিষেধাজ্ঞার খাড়া কাটিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে আবার ফিরেছেন সাব্বির রহমান।

এ দুটি সমসাময়িক ইস্যুতে মুখ খুলেছেন টিম বাংলাদেশের সিনিয়র সদস্য তামিম ইকবাল। তার অনুভব, ইমরুল খানিক দুর্ভাগা। আর সাব্বির রহমানের ফেরাটাকে ইতিবাচক চোখেই দেখতে চান তিনি।

ইমরুল কায়েসকে দুর্ভাগা আখ্যা দিয়ে তামিম বলেন, ‘এটা দুর্ভাগ্য। একটা সিরিজে ৩৫০ রানের ওপরে (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৩৪৯) করার করে পরে দুটি ম্যাচে খারাপ করেছে। এতেই নির্বাচিত না হওয়া এটাও মেনে নিতে হবে! ক্রিকেটে এটা হয়, অনেক সময় পজিশন, দলের সমন্বয়ের কারণে সব কিছু মনমতো হয়তো হয় না। তবে নির্বাচক, কোচ কিংবা অধিনায়কের মাথায় হয়তো ইমরুল ছিল। ভাবনায় নিশ্চয়ই কিছু একটা ছিল বলে হয়তো তাকে নেওয়া হয়নি। তবে সব সময়ই সুযোগ আসে, আশা করি তখন সেটি লুফে নেবে।’

বিপিএলে সৌম্য-লিটন রানের মধ্যে নেই। ওপেনাররা রান পাচ্ছে না, কতটা চিন্তার? এমন প্রশ্নর মুখোমুখি হয়ে তামিম বলেন, ‘ফরম্যাট একটু ভিন্ন। রানে থাকলে এটা যে কোনো সংস্করণে হেল্প করতে পারে। সবাই যদি রানে ফিরতে পারে, ভালো হবে। আমাদের ভিন্ন সংস্করণ, উইকেট, কন্ডিশনে খেলা হবে। যাওয়ার আগে ব্যাটসম্যানরা যদি এক-দুই ম্যাচ ভালো খেলে, ভালো হবে।’

সাব্বিরের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে নানা কথা। তামিম বিষয়টিকে কীভাবে দেখেন? খুব জানতে ইচ্ছে করছে তাইনা? তাহলে শুনুন, আজ মিডিয়ার কাছ থেকে সে কৌতূহলী প্রশ্নর সম্মুখীন হয়েছিলেন তামিম। জবাব দিতে গিয়ে অনেক কথার ভীড়ে তামিম দুটি তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। তার একটি হলো, সাব্বির তার অতীতে করা ভুল থেকে শিক্ষা নেবে। আর অন্য মানুষ হয়ে ফিরবে।

‘যেহেতু দল ঘোষণা হয়ে গেছে, সে (সাব্বির) ১৫ জনের অংশ। তার প্রতি এটাই শুভকামনা থাকবে যে, অতীতে যে সে ভুলগুলো করেছে আশা করি সেটির পুনরাবৃত্তি হবে না। সে নিজেও হয়তো এটা বোঝে। ওর সঙ্গে ব্যক্তিগত অনেক কিছু শেয়ার করি। আশা করি অন্য মানুষ হয়ে সে ফিরবে। ওর যে দায়িত্ব আছে শুধু বাংলাদেশের হয়ে খেলাই নয়, খেলোয়াড় হিসেবে যা যা করার দরকার সব পালন করবে।’

বিপিএলের অভিজ্ঞতা নিউজিল্যান্ডে কোনো কাজে দেবে কি-না? তামিমের মতো, ফরম্যাট ভিন্ন হলেও বিপিএলের পারফরমেন্স সবার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পারে।

‘আগেই বললাম, এটা ভিন্ন সংস্করণ। যদি তাসকিনের কথা বলি, ১৭টা উইকেট পেয়ে গেছে। এটা অবশ্যই তাকে আত্মবিশ্বাসী করবে। মুশফিক দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক, এগুলো অবশ্যই আত্মবিশ্বাস দেয়। আপনি কোন সংস্করণ খেলছেন, এটা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়, আপনি যদি ভালো ব্যাটিং-বোলিং করেন, তবে আপনাকে অবশ্যই সেটি আত্মবিশ্বাস জোগাবে।’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.