ব্রেকিং নিউজ

যে কারনে ৪ ম্যাচ নিষিদ্ধ সরফরাজ আহমেদ

ম্যাচের মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার আন্দিলে ফেলুকওয়েকে উদ্দেশ্য করে বর্ণবাদী মন্তব্য করে বেশ ভালোই ফেঁসেছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ক্ষমা চেয়েও পার পেলেন না। শেষ পর্যন্ত আইসিসি চার ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করেছে সরফরাজকে। পরবর্তী দুটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে পারবেন না এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

আইসিসির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, বর্ণবাদী নীতির কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গের দায়ে সরফরাজকে এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। তার এই নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে রোববার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নিশ্চিত করা হয়।

আইসিসির পক্ষ থেকে এই বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আইসিসির বর্ণবাদী নীতিতে বলা হয়েছে, যেকোনো অবস্থানের খেলোয়াড়, খেলার সঙ্গে সম্পর্কিত ব্যক্তি, আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারি, আম্পায়ার প্যানেলের সদস্য বা ম্যাচ সম্পর্কিত কোনো ব্যক্তিকে তার ধর্ম, বর্ণ, জাতীয়তা, বংশ ও জাতিগত উৎস সম্পর্কে অপমান, ভয়, হুমকি, অসম্মান বা বিরক্ত করা যাবে না।’

নিষেধাজ্ঞার আওতায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চতুর্থ এবং পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডেতে মাঠে নামতে পারবেন না সরফরাজ। এমনকী খেলা হচ্ছে না টি-টোয়েন্টি সিরিজেও।

সরফরাজের পরিবর্তে পাকিস্তানের একাদশে অন্তর্ভূক্ত হয়েছেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। আর অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন শোয়েব মালিক।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.