ব্রেকিং নিউজ

 চুরি হওয়া সাইকেল মির্জাপুরের স্কুলছাত্র হাসান পাবে তো?

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: চুরি যাওয়া স্কুটি পুলিশের সহায়তায় ফিরে পেয়েছে উবার মোটর সাইকেল রাইড শেয়ার করে জীবিকা নির্বাহ করা শাহনাজ আক্তার। ঘটনা এ মাসেরই। কিন্তু এবার চুরি গিয়েছে হাসান নামের এক স্কুল ছাত্রের শখের সাইকেল।

স্কুলে যাতায়াতে যা তার অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল। কিন্তু এটি কিনে দেওয়ার সাধ্য ছিলনা হাসানের বাবা কাঠমিস্ত্রি মজনু মিয়ার। তবুও স্কুলের একটি বৃত্তি পরিক্ষায় প্রথম হওয়ায় স্থানীয় একটি এনজিও থেকে ১০ হাজার টাকা লোন নিয়ে গত ১৬ ডিসেম্বর হাসানকে সাইকেলটি কিনে দেয় তার বাবা।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুরে সেই সাইকেলটি চুরি হয়ে যায় মির্জাপুর পৌর সদরে অবস্থিত রফিকরাজু স্কুলের সামনে থেকে। ঘটনার পর ৮ম শ্রেণীতে পড়ুয়া নাম হাসানের কান্না থামাতে বেগ পেতে হয় উপস্থিত সবার। ওই ছাত্রটির মা নিজেও কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি কান্না জড়িত কন্ঠে বলতে থাকেন আমার ছেলেটার আর লেখাপড়া হইবে না। এনজিও থেকে টাকা তোলে সাইকেলটি কিনে দিয়েছিলাম। সেটিও আজ চুরি হয়ে গেলো।

মির্জাপুর থানার ওসি একেএম মিজানুল হক ঘটনা শোনার পর পৌর সদরে লাগানো সবকটি কেøাজ সার্কিট ক্যামেরা রিভিউ করতে থাকেন। ঘন্টা দুয়েক পর পেয়ে যান গুরুত্বপূর্ন ক্লু। দরিদ্র হাসানের মাকে জোর করে দুপুরে খাওয়ার জন্য ২০০ টাকাও দেন ওসি। আশ্বাস দেন সাইকেলটি উদ্ধার করে দিবেন তিনি। এমনটিই জানান থানায় অভিযোগ নিয়ে যাওয়া হাসানের মা শিল্পী আক্তার। তিনি আরও বলেন, আমার ছেলেটা দীর্ঘ এক বছর যাবৎ একটা সাইকেলের আবদার করে আসছিল। ওকে এখন কি দিয়ে বুঝাবো!

ওসি একেএম মিজানুল হক স্কুল ছাত্রের সাইকেলটি হারিয়ে যাওয়ার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেন। তার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে সাইকেলটি উদ্ধারের। খুব দ্রুতই সাইকেল চোরকে শনাক্ত করে সাইকেলটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.