টাঙ্গাইলে প্রায় ১৬০০ পিস ইয়াবাসহ তিন ব্যবসায়ী ও শিবির নেতা আটক

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: জঙ্গি ও মাদক বিরোধী অভিযানে অংশ হিসেবে টাঙ্গাইলে প্রায় ১ হাজার ৬শত পিস ইয়াবা এবং সন্ত্রাস ও নাশকতা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী শহর জামায়াত-শিবিরের সেক্রেটারীসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

আজ শনিবার বিকেলে টাঙ্গাইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সায়েদুর রহমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন, টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার বাঐখোলা পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে মো. বাদল রহমান, টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বেড়াডোমা ইসলামবাগ এলাকার মো. হযরত আলীর ছেলে জুলকার নাঈম বাবু ও কালিহাতী উপজেলার পাঁচ চারান গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী মোছা দোলন ওরফে দোলন মীর।

অপরদিকে জঙ্গিবাদ বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে একাধিক সন্ত্রাস ও নাশকতা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী টাঙ্গাইল শহর জামায়াত-শিবিরের সেক্রেটারি মো. আলমগীর হোসেনকে আটক করা হয়। সে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বাঘিল ইউনিয়নের সিফুলিআটা গ্রামের মৃত এলাহি ব্যাপারীর ছেলে।

টাঙ্গাইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান বলেন, সারাদেশের ন্যায় টাঙ্গাইলেও জঙ্গি ও মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ অভিযানের অংশ হিসেবে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টাঙ্গাইল সদর থানাধীণ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রায় ১৬শত পিস ইয়াবা ও নারীসহ তিনজন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

সেই সাথে সন্ত্রাস ও নাশকতার পরিকল্পনাকারী একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী টাঙ্গাইল শহর জামায়াত-শিবিরের সেক্রেটারি আলমগীর হোসেনকেও আটক করা হয়। আগামীতে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.