ব্রেকিং নিউজ

পাকিস্তানের চেয়ে অর্থসূচকে এগিয়ে বাংলাদেশ

অগ্রগতির নানা মানদণ্ডে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নানা সূচকে প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ অনেক দেশকেই পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, অর্থ সূচকে পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। উচ্চ প্রবৃদ্ধির হার ও নিম্ন জনসংখ্যা বৃদ্ধির হারের কারণে এ সাফল্য অর্জন করছে বাংলাদেশ।

১৯৭১ সালে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক সূচকে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক পিছিয়ে ছিল। এখন বাংলাদেশ পাকিস্তানের চেয়ে মানব উন্নয়নের সব সূচকে এগিয়ে। পেছনে পড়ে আছে পাকিস্তান।

বিশ্বব্যাংক বলছে, নব্বইয়ের দশকে পাকিস্তানিদের মাথাপিছু গড় আয় ছিল ২০৬০ ডলার, ভারতের ১১২০ ডলার এবং বাংলাদেশের মাত্র ৮৫০ ডলার। ২০১৭ সালে বাংলাদেশের মাথাপিছু গড় আয় ৫ গুণ বেড়ে হয়েছে ৪০৪০ ডলার। ভারতের আয় পৌঁছেছে ৭০৬০ ডলার এবং পাকিস্তানের ৫৮৩০ ডলার।

আশির দশকে পাকিস্তানের জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৭ দশমিক ৬ শতাংশ, ভারতের ৫ দশমিক ৩ শতাংশ এবং বাংলাদেশের ৩ দশমিক ৩ শতাংশ। এখন পাকিস্তানের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৪ দশমিক ৭ শতাংশ আর বাংলাদেশের ৬ দশমিক ৬ শতাংশ এবং ভারতের ৮ দশমিক ২ শতাংশ।

এদিকে পাকিস্তানের জনসংখ্যা বাড়ছে বাংলাদেশের দ্বিগুণ গতিতে। ২০১৭ সালের হিসাবে পাকিস্তানে বছরে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ১ দশমিক ৯ শতাংশ আর বাংলাদেশে ১ দশমিক ৫ শতাংশ। এছাড়া বাংলাদেশিদের গড় আয়ুও এখন পাকিস্তানিদের চেয়ে গড়ে ছয় বছর বেশি। ১৯৭৫ সালে পাকিস্তানিদের গড় আয়ু ছিল ৫৫ দশমিক ২ বছর আর বাংলাদেশিদের ৪৮ দশমিক ৯ বছর।

২০১৬ সালে পাকিস্তানিদের গড় আয়ু দাঁড়ায় ৬৬ দশমিক ৫ বছর আর বাংলাদেশিদের ৭২ দশমিক ৫ বছর। ১৯৭৫ সালে পাকিস্তান ও বাংলাদেশে প্রতি হাজারে ৫ বছরের কম বয়সী শিশুর মৃত্যুর হার ছিল ২০০ জন। ২০১৬ সালে এই হার এসে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তানের ৭৯ এবং বাংলাদেশের ৩৪ জন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.