ব্রেকিং নিউজ

মির্জাপুরে ইউএনও’র খুলে দেয়া সেই নদীতে পুনরায় বাঁধ; ৩ জনের জেল

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: “নদীর গতি ফিরিয়ে দিলেন ইউএনও” এমন শিরোনামে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সংবাদ প্রকাশিত হয় দেশের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে।

কিন্তু নদীর গতি ফিরিয়ে দেওয়ার রাত না পোহাতেই বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় প্রভাবশালীরা পুনরায় সেই নদীর উপর বাঁধ দিয়ে রাস্তা বানিয়ে মাটি পরিবহন করা শুরু করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে এ ঘটনায় জড়িত ৩ জনকে আটক করে ৩ মাস করে সাজা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মালেক।

সাজা প্রাপ্তরা হলেন এসএমবি ব্রিকসের ম্যানেজার লতিফপুর গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে লোকমান হোসেন (৩৮), লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার নীলক্ষেতসুন্দর গ্রামের আবু তালেবের ছেলে ভেক্যু ড্রাইভার মো. এরশাদ মিয়া (২৯) ও উপজেলার বহুরিয়া গ্রামের ছবুর আলীর ছেলে জুলহাস মিয়া (৪০)।

উল্লেখ্য যে, টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার কোট বহুরিয়া এলাকা দিয়ে প্রবাহিত লৌহজং নদীর উপর অবৈধভাবে রাস্তা বানিয়ে মাটির ব্যবসা করে আসছিল কিছু অসাধু মাটি ব্যবসায়ীরা। ফলে ঐ নদীতে নৌ যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি পানি প্রবাহের স্বাভাবিক গতি যেমন ব্যহত হচ্ছিল, ক্ষতি হচ্ছিল কৃষি কাজের, বাধাগ্রস্থ হচ্ছিল মাছের স্বাভাবিক প্রজনন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মালেক বলেন, প্রভাবশালীরা যতই ক্ষমতাধর হোকনা কেন কেউ-ই আইনের উর্ধ্বে নয়। নদীর স্বাভাবিক গতি প্রবাহ নষ্ট করে এমন কাজ করলে ভবিষ্যতে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবেনা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.