চ্যাট করলেই প্রতি অক্ষরে দিতে হবে টাকা!

আজ পর্যন্ত যত চ্যাটিং অ্যাপ বা মেসেজিং সার্ভিস দেখা গেছে সবই ছিল ফ্রি। এমনকি এসব মেসেজিং সার্ভিস থেকে ভয়েস কল কিংবা ভিডিও কলও দেয়া যায় ফ্রি। বিশেষ করে ফেসবুক মেসেঞ্জার, ইমো কিংবা হোয়াটস অ্যাপের জনপ্রিয়তা তুমুল। এর কারণ এরা সবাই ফ্রি শুধু চ্যাটিং নয়, কলিং কিংবা ভিডিও শেয়ারিং দিচ্ছে ফ্রি। অথচ শুধু চ্যাট করলেই কিনা প্রতি অক্ষরে গুনতে হবে টাকা! হ্যাঁ, এমন সার্ভিসও আছে।

‘এঙপেনসিভ চ্যাট’ নামের এই চ্যাটিং রুম আপনার প্রতি অক্ষর চ্যাটের জন্য এক পেনি করে চার্জ করে। এর উদ্যোক্তার নামের সঙ্গে ফেসবুকের উদ্যোক্তার নামের মিল আছে। মার্ক জাকারবার্গের সঙ্গে মিল রেখেই কিনা কে জানে এই ভদ্রলোকের মার্ক কোলবার্গে। আর চ্যাট করলে সরাসরি পেনি বা টাকা চলে যায় এই মার্ক কোলবার্গের কাছে। এই চ্যাট রুমে একটি ড্যাশ বোর্ড থাকে। এখানে দেখা যায় সবচেয়ে বেশি টাকা খরচ করেছে কে।

মার্ক কোলবার্গের মতে, একজন মানুষ আসলেই কি টাকা খরচ করে চ্যাট করতে আগ্রহী কিনা সেটা দেখতেই তার এই উদ্যোগ। এখন দেখা যাক তার এই উদ্যোগ কতটা সাড়া ফেলে। এঙপেনসিভ চ্যাটের উদ্দেশ্য- ভবিষ্যতে সেলিব্রেটি কিংবা পাবলিক ফিগার যারা তাদের সঙ্গে চ্যাট করতে হলে এই আইডিয়া কাজে লাগানো যাবে। আপনি যদি মেসির সঙ্গে কথা বলতে চান তবে হয়তো প্রতি মেসেজের জন্য চার্জ করা হবে আর সেই টাকা চলে যাবে সরাসরি মেসির চ্যারিটি ফান্ডে। এখন পর্যন্ত এই চ্যাট রুমে ২৫০ ডলারের বেশি খরচ করে মানুষ চ্যাট করেছে। দেখা যাক, এঙপেনসিভ চ্যাটের প্রতি মানুষ কতটা আগ্রহ দেখায়। যে সময়টাতে প্রায় সব সেবাই ফ্রিতে পাওয়া যাচ্ছে সেখানে গাঁটের পয়সা খরচ করতে কোন শ্রেণির মানুষ উঠে পরে লাগে সেটাও দেখার বিষয়।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.