এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও খোঁজ মেলেনি নাগরপুরের প্রবাস ফেরত আবুল কালামের

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের নাগরপুরের মো.আবুল কালাম নামের প্রবাস ফেরত যুবক নিখোঁজ হওয়ার এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও তার সন্ধান মেলেনি। সে উপজেলার পাকুটিয়া ইউনিয়নের পুখুরিয়া গ্রামের জৈনুদ্দিনের পুত্র।

জানা যায়, চলতি বছরের ১০ মার্চ সকাল ১০টার দিকে রুপালী ব্যাংক সাটুরিয়া শাখায় টাকা তোলার জন্য তিনি বেরিয়ে যান। এরপর আর সে বাড়ী ফিরেনি। এদিকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ খবর করেও তার সন্ধান না পাওয়ায় চরম উদ্বেগ ও উৎকন্ঠায় রয়েছে স্বজনরা। একই সঙ্গে কেউ তাকে অপহরণ করতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন তার পরিবার।

এ ঘটনার পরের দিন ১১ মার্চ নিখোঁজ যুবকের বড় ভাই অবসরপ্রাপ্ত উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. মোস্তফা কামাল নাগরপুর থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন।

নিখোঁজের বড় ভাই ও ডায়েরী সূত্রে জানা গেছে, মো. আবুল কালাম প্রায় ১৬ বছর পর সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরেন। ১০ মার্চ সকাল ১০টার দিকে এফডিআর (ফিক্স্ড ডিপোজিট) উত্তোলনের জন্য সাটুরিয়া রুপালী ব্যাংক শাখার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা দেয়। এরপর থেকে আবুল কালাম নিখোজ রয়েছে। তার সেলফোনটি অদ্যাবধি বন্ধ আছে।

আত্মীয়-স্বজনসহ সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজাখুঁজির পর তার হদিস না পেয়ে রুপালী ব্যাংক সাটুরিয়া শাখায় খোঁজ নেয়া হয়। সেখানে সিসিটিভি ফুটেজে তার দেখা মিললেও ওই শাখায় তার কোন হিসাব নাই এমনকি কোন লেনদেনও হয়নি বলে শাখা ব্যবস্থাপক নিখোঁজ যুবকের বড় ভাই মোস্তফা কামালকে নিশ্চিত করেন।

নিখোঁজ যুবকের বড় ভাই মোস্তফা কামাল আরো জানান, তার ভাই নিখোঁজ হওয়ার ৭ দিন অতিবাহিত হলেও তার কোন সন্ধান না পাওয়ায় চরম হতাশাগ্রস্থ হয়ে পরেছেন। অবশেষে গত ১৫ মার্চ টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ কোম্পানি কমান্ডার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.