ব্রেকিং নিউজ

মির্জাপুরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, আটক ১৩

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক : জুট ব্যবসার টাকা ভাগাভাগি ও আধিপত্ত বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মধ্যে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। আধিপত্তকে বিস্তারকে ডাকাতি ও ছিনতায় ঘটনার সাজাতে গিয়ে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই শিল্পাঞ্চলে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থল থেকে এলাকাবাসির সহযোগিতায় পুলিশ ১৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে এসেছেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, গোড়াই শিল্পাঞ্চলের ক্যাডেট কলেজ এলাকায় প্রতিষ্ঠিত খান গার্মেন্টেসের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইমপ্রেস নিউটেক্স জুট মিলে জুটের ব্যবসার টাকা ভাগাভাগি ও আতিপত্ত বিস্তার নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়েছে।

জানা গেছে, শ্রমিক নিয়োগ, (ওয়েসস্টেস) জুট ব্যবসাসহ এই মিলের সকল কাজের নিয়ন্ত্রণ করেন গোড়াই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের (পুর্ব) সাধারণ সম্পাদক মো. সালাউদ্দিন ভুইয়া ঠান্ডু, তার ছোট ভাই উপজেলা যুবলীগের সাবেক সদস্য মো. সানোয়ার হোসেন ভুইয়াসহ তাদের সহযোগিরা। আজ বুধবার ঐ কারখানা থেকে দুই ট্রাক (ওয়েসস্টেস) জুট নিয়ে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের স্থানীয় কিছু যুবক বাঁধা দেয় এবং ট্রাক দুটি ছিনতাই হয়েছে বলে সালাউদ্দিন ভুইয়া ঠান্ডু ও তার ভাই সানোয়ার হোসেন ভুইয়া অভিযোগ করেন। তারা এই ঘটনা মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল, মো. মাজাহরুল ইসলাম শিবলু ও এসএম এরশাদ মিয়াকে জানান। তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের সঙ্গে যুক্ত হলে প্রতিপক্ষের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনা পুলিশ ও আশপাশের গ্রামের মধ্যে ছড়িয়ে দেয় ট্রাক ছিনতাই ও ডাকাতি হয়েছে। এছাড়া তাদের গুলি করা হয়েছে এবং কয়েকটি প্রাইভেটকার ভাংচুর করা হয়েছে। স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশ রাসেল, শাওন, রাজিব, ওয়াজেদ, জাবেদ, কবির, আরিফ, লিটন, সোহেল, মহিমুল, রাজিব, রাজু ও কায়সারকে আটক করেছে।

এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ সোহেল, রাসেল ও রাজিবসহ অন্যান্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সালাউদ্দিন ভুইয়া ঠান্ডু, তার ছোট ভাই সানোয়ার হোসেন ভুইয়াসহ তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী আওয়ামী লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে গোড়াই এলাকায় ত্রাসের সৃষ্টি করে এলাকাকে জিম্মি করে রেখেছে। এই সন্ত্রাসী গ্রুপ গোড়াই এলাকায় বিভিন্ন মিলকারখানায় লাখ লাখ টাকা চাঁদবাজি করে আওয়ামী লীগের সুনাম খুন্ন করছে। তাদের সন্ত্রাসের কেউ প্রতিবাদ করতে গেলেই তাদরে নামে মিথ্যা ও সাজানো অভিযোগ দিয়ে হয়রানী করে আসছে। ট্রাক ছিনতাই ও ডাকাতির ঘটনা মিথ্যা ও সাজানো নাটক।

এ ব্যাপারে সালাউদ্দিন ভুইয়া ঠান্ডু ও তার ছোট ভাই সানোয়ার হোসেন ভুইয়া বলেন, সন্ত্রাসীরা জুট ভর্তি ট্রাক ছিনতাই করে পালানোর সময় তাদের বাঁধা দিলে তারা গুলি করে ও প্রাইভেটকার ভাংচুর করেছে। তবে কে বা কারা গুলি করেছে এমন প্রশ্ন করা হলে তারা বলেন তারা দেখেনি এবং তাদের মধ্যে কেউ গুলিবিদ্ধ হয়নি।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম মিজানুল হক মিজানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রকৃত ঘটনা কি আমরাও এখন পর্যন্ত বুঝতে পারছি না। ঘটনার পর এলাকাবাসির সহায়তায় পুলিশ কয়েকজনকে আটক করেছে। এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি। অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটনের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.