টাঙ্গাইলে উপজেলা নির্বাচনে বিজয় হলেন যারা

নিজস্ব প্রতিনিধি : পঞ্চম ধাপে চতুর্থ পর্যায়ের উপজেলা নির্বাচনে রোববার টাঙ্গাইলের ১২ উপজেলায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই ১২ উপজেলার ৮ টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। অপর দিকে ৩ টিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী এবং ১ টিতে বিএনপির বহিস্কৃত ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়ী হয়েছে। প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকায় টাঙ্গাইলের গোপালপুর, ধনবাড়ী ও মধুপুর উপজেলায় ৩জন চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে। রোববার (৩১ মার্চ) রাতে উপজেলা পর্যায়ের সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তাগণ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নির্বাচিত প্রার্থীরা হলেন :- টাঙ্গাইল সদর উপজেলা : এ উপজেলায় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক শাহজাহান আনছারী (নৌকা) প্রতিকে ৫৯,৯৬৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি বহিষ্কৃত টাঙ্গাইল সদর উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী (ঘোড়া) প্রতিকে ৩৭,৭৯৫ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ৩ লাখ ৮০ হাজার ৩৩৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৮৮ হাজার ৫৭৩ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯১ হাজার ৭৬৫ জন। মোট কেন্দ্র ১২৭টি।

মির্জাপুর উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন মন্টু (নৌকা ) প্রতিকে ৬৮,৮৫৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা বিএনপি সদস্য (পদত্যাগপ্রাপ্ত) ফিরোজ হায়দার খান (মোটরসাইকেল) প্রতিকে ৪১,৪৯৯ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ৩ লাখ ২২ হাজার ৭৪৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৯ হাজার ৯৩৬ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৬২ হাজার ৮১২ জন। মোট ভোট কক্ষ ৭৯৫ টি ও মোট কেন্দ্র ১২০টি।

ঘাটাইল উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম লেবু ( নৌকা) প্রতিকে ৬৪,১০৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আরিফ হোসেন ( আনারস) প্রতিকে ২৯,৮৮৭ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ৩ লাখ ১৩ হাজার ৬০৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫৫ হাজার ২২২ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৫৮ হাজার ৩৮৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ৭৫৫ টি ও মোট কেন্দ্র ১১৭টি।

ভূঞাপুর উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল হালিম (নৌকা) প্রতিকে ২০,৬৮০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আমিরুল ইসলাম তালুকদার (মোটরসাইকেল) প্রতিকে ১৫৯১৪ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ১ লাখ ৪৬ হাজার ৩৬২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭৪ হাজার ১১৯ জন ও মহিলা ভোটার ৭২ হাজার ২৪৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩৫৬ টি ও মোট কেন্দ্র ৫৭ টি।

সখীপুর উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী জুলফিকার হায়দার কামাল (নৌকা) প্রতিকে ৫০,০৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু সাইদ মিয়া (আনারস) প্রতিকে ৩৬,৪৩৬ ভোট পেয়েছেন।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ১২ হাজার ৯৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩১ হাজার ৭৫ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯৮ হাজার ১২ জন। মোট ভোট কক্ষ ৫২৪ টি ও মোট কেন্দ্র ৬৯ টি।

দেলদুয়ার উপজেলা : এ উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহমুদুল হাসান (আনারস) প্রতিকে ২৬,৯৯০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফজলুল হক (নৌকা) প্রতিকে ১৫,৮৫৭ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ১ লাখ ৬১ হাজার ৩৯৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮০ হাজার ৪৮২ জন ও মহিলা ভোটার ৮০ হাজার ৯১৪ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩২৭ টি ও মোট কেন্দ্র ৫৬টি।

কালিহাতী উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আনছার আলী (আনারস) প্রতিকে ৬৬,০২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোজহারুল ইসলাম তালুকদার (নৌকা) প্রতিকে ২৭,৮৪৯ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ৩ লাখ ১২ হাজার ১১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১লাখ ৫৫ হাজার ৪০৫ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৫৬ হাজার ৭০৭ জন। মোট ভোট কক্ষ ৬২০ টি ও মোট কেন্দ্র ১০৮ টি।

বাসাইল উপজেলা : এ উপজেলায় আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম (আনারস) প্রতিকে ৩৫,৩৬১ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাজী মতিয়ার রহমান গাউস (নৌকা) প্রতিকে ১৩,৫৮৮ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ১ লাখ ৩৩ হাজার ৭৪২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৫ হাজার ৩২৩ জন ও মহিলা ভোটার ৬৮ হাজার ৪১৯ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩৪১ টি ও মোট কেন্দ্র ৫৩ টি।

নাগরপুর উপজেলা : এ উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আব্দুছ ছামাদ দুলাল (ঘোড়া) প্রতিকে ৩৫,৮৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের প্রার্থী কুদরত আলী (নৌকা) প্রতিকে ২৮,৩৭২ ভোট পেয়েছেন ।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ২৯ হাজার ৫৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৩ হাজার ৫৬১ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ১৫ হাজার ৪৯৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ৬০৫ টি ও মোট কেন্দ্র ৮৫টি।

ধনবাড়ী উপজেলা : এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হারুনার রশিদ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ১ লাখ ৪২ হাজার ১৪০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৯ হাজার ৬৪৮ জন ও মহিলা ভোটার ৭২ হাজার ৪৯২ জন। মোট ভোট কক্ষ ৩৫০ টি ও মোট কেন্দ্র ৫৬টি।

মধপুর উপজেলা : এ উপজেলায় চেয়ারমান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছরোয়ার আলম খান আবু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ২২ হাজার ৯২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯৪ হাজার ১৬ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ১৩ হাজার ৫০৯ জন। মোট ভোট কক্ষ ৫২১ টি ও মোট কেন্দ্র ৮৩টি।

গোপালপুর উপজেলা : এ উপজেলায় চেয়ারমান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান পরিষদের চেয়ারম্যান ইউনুছ ইসলাম তালুকদার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছে।

এ উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ২২ হাজার ৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১লাখ ১০ হাজার ৯৫ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ১১ হাজার ৯৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ৫১৬ টি ও মোট কেন্দ্র ৭৫ টি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.