টাঙ্গাইলে ১২১ বছর বয়স; তবুও মেলেনি বয়স্ক ভাতা!

নিজস্ব প্রতিনিধি : টাঙ্গাইল বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন হাতেম আলী। স্থানীয়দের ধারণা ইউনিয়নের সর্বোচ্চ বয়স্ক ব্যক্তি তিনি। ওই বৃদ্ধের দাবি তাঁর বয়স ১২১ বছর চলছে। লাঠিতে ভর দিয়ে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটেন। শরীরে আগের মতো শক্তি নেই। কাজ করার মতো বল পান না তিনি। বাড়ি থেকে মসজিদ। আর ভালো লাগলে বাড়ির সামনে নাতি-নাতনিদের সঙ্গ দেওয়া। বয়সটা যেন পরনির্ভরশীলতায় পৌঁছে দিয়েছে।

সরকারি নির্দেশনায় বয়স্ক ভাতা পেতে সর্বনিন্ম ৬৫ বছর বয়সসীমা ধরা হলেও অজ্ঞাত কারণে দ্বিগুন বয়সেও বয়স্ক ভাতা পচ্ছেন না ওই বৃদ্ধ।
হাতেম আলী টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার পাথরাইল ইউনিয়নের চিনাখোলা গ্রামের মৃত নছের মন্ডল ও মৃত ময়রী বেগমের সন্তান। তার ঘরেও রয়েছে ৬ মেয়ে ও ৫ ছেলে। এ বয়সেও তিনি মসজিদে নামাজ আদায় করেন ও আযান দেন। বৃদ্ধ বয়সে তার আক্ষেপ এখনও তিনি বয়স্ক ভাতা পাননি। প্রথমে দীর্ঘদিন তিনি চৌকিদারের (গ্রাম পুলিশ) পেছনে ঘুরেছেন ভাতার জন্য। জানতে পারেন চৌকিদাওে এ দায়িত্ব না। পওে পাথরাইল ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য (মেম্বার), চেয়ারম্যানের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করেও কোন লাভ হয়নি। তার প্রশ্ন “আর কত বয়স হলে আমি বয়স্ক ভাতা পাব ?

জাতীয় পরিচয় পত্রে তার জন্ম সাল (১৯১৩) অনুযায়ী তার বর্তমান বয়স ১০৬ বছর। স্থানীয় শত বছরের একাধিক বৃদ্ধ জানিয়েছেন, তার বয়স আরও অনেক বেশি হবে। তবে হাতেম আলীর দাবি তাঁর বয়স ১২১ বছর। এলাকার এই বয়োজ্যৈষ্ঠ হাতেম আলী বয়স্ক ভাতা না পাওয়ায় সমালোচনায় পড়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

বয়স্ক ভাতা র্কমসূচি বাস্তবায়ন নীতমিালায় উল্লেখ রয়েছে, (১) সংশ্লিষ্ট এলাকার স্থায়ী বাসন্দিা হতে হবে । (২) জন্ম নিবন্ধন/জাতীয় পরচিতি নম্বর থাকতে হবে । (৩) বয়স পুরুষরে ক্ষেত্রে র্সবনম্নি ৬৫ বছর এবং মহলিাদরে ক্ষেত্রে র্সবনম্নি ৬২ বছর হতে হবে। (৪) প্রার্থীর র্বাষকি গড় আয় অনূর্ধ ১০,০০০ (দশ হাজার) টাকা হতে হবে । (৫) বাছাই কমিটি র্কতৃক নির্বাচতি হতে হবে।

এছাড়া ভাতা প্রাপ্তরি অযোগ্যতার ক্ষেত্রে (১) সরকারি র্কমচারী পনেশনভোগী হলে । (২) দুঃস্থ মহিলা হসিেেব ভিজিডি কার্ডধারী হলে । (৩) অন্য কোনোভাবে নিয়মিত সরকারি অনুদান/ভাতা প্রাপ্ত হলে । (৪) কোনো বেসরকারি সংস্থা/সমাজকল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠান হতে নিয়মিতভাবে আর্থিক অনুদান/ভাতা প্রাপ্ত হলে।
ভাতা প্রাপ্তির সবগুলো যোগ্যতা থাকার পরও কেন বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন না এমন প্রশ্ন হাতেম আলীসহ তার স্বজনদের।

হাতেম আলী জানান, আমি কয়েকবার স্থানীয় ইউপি সদস্যের কাছে বয়স্ক ভাতার হন্য অনুরোধ করেছি। সাবেক ইউপি সদস্যের কাছেও অনুরোধ করেছি । কেও তাকে বয়স্ক ভাতার কার্ড দেননি। নির্বাচনের আগে প্রার্থীরা তাকে কার্ড দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও নির্বাচনের পর আর কোন খোঁজ নেননি নির্বাচিত প্রতিনিধিরা। বয়স্ক ভাতা নাগরিক অধিকার। শেষ বয়সে তিনি সেই নাগরিক অধিকার পেতে সরকারের কাছে জোর দাবি জানান।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মীর আনিছুর রহমান জানান, হাতেম আলীর জাতীয় পরিচয় পত্রে একটু সমস্যা ছিল। এজন্য তাঁর কার্ড হয়নি। তবে উপজেলা সমাজ সেবা অফিসারের সাথে কথা বলে দ্রুত বয়স্ক ভাতার কার্ডের ব্যবস্থার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

পাথরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হানিফুজ্জামান লিটন বলেন, সম্প্রতি একটি তালিকা অনুমোদন হয়েছে। আগে জানলে এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যেত। আগামী জুন মাসে নতুন তালিকা হবে। তখন অবশ্যই হাতেম আলীর নাম বয়স্ক ভাতার আওতায় আনা হবে।

দেলদুয়ার উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোবারক হোসেন বলেন, এখনও এরকম বয়স্ক লোক বয়স্ক ভাতার আওতায় পড়েনি আমার জানা ছিলনা। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে হাতেম আলীর বয়স্ক ভাতার কার্ড দেওয়ার আশ^াস দেন সমাজ সেবার এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.