ব্রেকিং নিউজ

টাঙ্গাইলের সাগরদিঘীর রাস্তা যেন মরণ ফাঁদ

নিজস্ব প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার প্রধান সড়ক উপজেলা শহর থেকে শহীদ সালাউদ্দিন সেনানিবাসের পাশ দিয়ে সাগরদিঘী হয়ে গুপ্তবৃন্দাবন পর্যন্ত রাস্তাটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

ঘাটাইল শহর থেকে গুপ্তবৃন্দাবন পর্যন্ত ৩২ কি:মি: এ রাস্তাটি খানাখন্দে ভরা এবং চলাচলের জন্য সম্পূর্ণ অনোপযোগী।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ঘাটাইল উপজেলা থেকে ধলাপাড়া বাজার হয়ে সাগরদিঘী বাজার পর্যন্ত রাস্তাটিতে বড় বড় খানা খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। যান চলাচলের কোন সুযোগ নেই এ রাস্তায়।

এলাকাবাসী জানায় রাস্তাটিতে দীর্ঘদিন যাবৎ কোন প্রকার যানবাহন না চলায় পাহাড়ি এলাকার মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হয়ে আসছে। অন্যদিকে সাগরদিঘী থেকে গুপ্তবৃন্দবন পর্যন্ত রাস্তাটি পাঁচ বছর যাবৎ চলাচলের অনুপযোগী হওয়া সত্বেও বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় বাধ্য হয়ে রাস্তা নামক এই মরণফাঁদ দিয়ে যাতায়েত করতে হচ্ছে।
ট্রাক ড্রাইভার সেলিম হাবিবী বলেন, আমার ট্রাকে কাঁচামাল নিয়ে ঢাকা যাবো কিন্তু রাস্তা খারাপ থাকায় আটকে আছি।

বর্তমানে উপজেলার পাহাড়ি এলাকা পোল্ট্রি শিল্পের জোন বলে পরিচিত। তাছাড়া কৃষি ফসলাদি কলা, আনারস, কাঁঠালসহ অন্যান্য উৎপাদিত পন্য এই রাস্তা ব্যবহার করেই ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়। কিন্তু যোগাযোগের ব্যবস্থা খারাপ থাকায় সঠিক সময়ে তা সরবরাহ করা সম্ভব হয় না ফলে খামারী এবং কৃষকরা বঞ্চিত হচ্ছে সঠিক মুনাফা থেকে।
এ রাস্তাটি উপজেলার অন্যতম যোগাযোগের মাধ্যম হওয়ায় বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

সাগরদিঘী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হেকমত সিকদার জানান, এ রাস্তাটি খারাপ থাকায় সাধারণ জনগন থেকে শুরু করে সকল শ্রেণির মানুষ চরমভাবে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।
রাস্তার এমন খারাপ অবস্থা থাকায় ডাকাতি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন সড়ক দুর্ঘটনার কারণ বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে টাঙ্গাইল জেলার সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আমিমুল এহসান বলেন, পূবেৃর ঠিকাদার কাজে বিলম্ব করায় টেন্ডার বাতিল করে রিটেন্ডার কল করা হয়েছে। এখন খুব দ্রুত কাজ শুরু হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.