ব্রেকিং নিউজ

ঘুমন্ত নারীকে ধর্ষণ : ৫ বছরের জেল অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারের

ধর্ষণের প্রমাণ মেলায় অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার অ্যালেক্স হেপবার্নকে ৫ বছরের জেল দিয়েছে হেয়ারফোর্ড ক্রাউন কোর্ট। উস্টারশায়ারের এই অলরাউন্ডারের বিরুদ্ধে সতীর্থের ঘরে এক ঘুমন্ত নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল।

২৩ বছর বয়সী হেপবার্নের যে জেল হবে, সেটি চলতি মাসের শুরুতে আদালতে ট্রায়ালের পরই বোঝা গিয়েছিল। ২০১৭ সালের এপ্রিলে ওই ধর্ষণের ঘটনায় তিনি দোষী প্রমাণিত হন। উস্টারশায়ার ক্রাউন কোর্টে চারদিনের ট্রায়ালে বেরিয়ে এসেছে, কিভাবে নারীদের বাগে এনে ‘যৌনতা বিষয়ক’ ম্যাসেজ দিয়ে শারীরিক সম্পর্কের দিয়ে নিয়ে যেতেন হেপবার্ন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার এমন কাজের সঙ্গী ছিলেন সতীর্থ জো ক্লার্কও। ঘটনার দিন সতীর্থ জো ক্লার্কের ঘরেই ফ্লোরে ম্যাট্রেসে একা ঘুমিয়ে ছিলেন ওই নারী। সেই সুযোগে হেপবার্ন ওই ঘরে ঢুকে পড়েন এবং তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেন। ঘুমের ঘোরে থাকা ওই নারী প্রথমে ভেবেছিলেন জো ক্লার্কের সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। কিন্তু মিনিট দশেক পর তিনি হেপবার্নের মুখটি দেখে আতকে উঠেন। পরে মামলাও করেন ওই নারী। তবে হেপবার্ন দাবি করেছিলেন, দুজনের সম্মতিতেই এমন ঘটনা ঘটেছে।

সাজা ঘোষণার সময় বিচারক জিম তিন্ডাল বলেন, ‘আমি আপনার উপর এই শাস্তির আরোপ করছি জুরিদের রিপোর্টের ভিত্তিতে। তারা নিশ্চিত হয়েছেন, ধর্ষিতাকে ঘুম থেকে তুলেছিলেন আপনি। কিন্তু তিনি তখনও ঘুমের ঘোরে ছিলেন এবং ভেবেছিলেন আপনি জো ক্লার্ক। আপনি ভেবেছিলেন ওই নারীর জন্য আপনি সৃষ্টার উপহার। আপনি ওই নারীকে মাংসের টুকরো ভেবেছিলেন, একজন মানুষ হিসেবে সম্মান দেননি।’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.