ফণীর প্রভাবে টাঙ্গাইলে বৃষ্টি, ক্ষতি এড়াতে মাইকিং

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে টাঙ্গাইলের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় হালকা বৃষ্টির খবর পাওয়া যায়। টাঙ্গাইলে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাত হানার সম্ভাবনা কম হলেও তা মোকাবেলা করতে এবং ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

জনসাধারণকে সর্তক করতে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধায় জেলার ঘাটাইল উপজেলায় মাইকিং করে প্রচারণা করছে প্রশাসন। এছাড়া ফণীর দূর্যোগ মোকাবেলায় জেলার প্রতিটি উপজেলায় পূর্বপ্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সব সভায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে শুক্রবার এবং শনিবার জেলার সকল সরকারি কর্মকর্তাকে যার যার এলাকায় থাকার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

টাঙ্গাইলের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোশারফ হোসেন খান বলেন, টাঙ্গাইলে ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাত হানার সম্ভাবনা কম। তবুও ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আগাম প্রস্তুতি হিসেবে এলাকায় মাইকিং করা হয়েছে। প্রস্তুত রাখা হয়েছে কন্টোল রুম, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, শুকনো খাবারসহ স্বেচ্ছাসেবকদের।

তিনি আরো জানান, প্রতিটি উপজেলায় মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমানে ত্রাণ সামগ্রী এবং আশ্রয় কেন্দ্রও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া শুক্রবার জেলার প্রতিটি মসজিদে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

মোশারফ হোসেন বলেন, লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়ার জন্য নৌকা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া জেনারেটর, লেজার লাইটসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিসের সহকারী উপ-পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, পুরো জেলায় ফায়ার সার্ভিসের ১০টি টিম প্রস্তত রয়েছে। যদি ফণীর আঘাতে টাঙ্গাইলে ক্ষয়ক্ষতি হয় তাহলে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাৎক্ষণিক কাজ করবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.