মির্জাপুরে আবাসিক হোটেল থেকে আটক ৫

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। রবিবার ৫মে বিকেলে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক সংলগ্ন উপজেলার গোড়াই শিল্পাঞ্চল এলাকায় অবস্থিত নির্মাণাধীন ভবনের দো’তলায় গোপন আবাসিক হোটেল কথিত রাজ গেষ্ট হাউজে অভিযান চালায় উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ঐ সময় আপত্তিকর অবস্থায় ২ যুবতী ও ৩ যুবককে আটক করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পরিচালনা করেন, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক। আটককৃতরা হলেন, কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলার নানশ্রী গ্রামের সেলিম মিয়ার স্ত্রী তৃষ্ণা আক্তার বৃষ্টি (১৯), গাজীপুর জেলার মোল্লাবাড়ী শ্রীপুর গ্রামের ইসমাঈল হোসেনে মেয়ে সিমরান (১৯) ও একই জেলার কাপাসিয়া থানার ভিটিপাড়া গ্রামের মোশাররফ হোসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৭), খুলনা জেলার পূর্ব রূপসা থানার রামনগর গ্রামের কেরামত আলী বিশ^াসের ছেলে মনির বিশ^াস (২৮), সিলেট জেলার শাহ্পরান থানার পূর্ব কসিকা গ্রামের মৃত: আব্দুর রহমানের ছেলে শরীফ আহম্মেদ (৩৫)। সে সময় তাদের কাছ থেকে ১ বস্তা কনডম জব্দ করা হয়।

সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ঐ স্থানে দীর্ঘদিন যাবৎ গোপনে আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে এ অভিযোগের ভিত্তিতে গোড়াই এলাকার কথিত রাজ গেষ্ট হাউজে অভিযান চালানো হয়। তখন আপত্তিকর অবস্থায় ৫ জনকে আটক করা হয় তবে সেখান থেকে হোটেলের ম্যানেজার প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে ভবন মালিকের নাম নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সে সময় ৫ তলা নির্মাণাধীন ভবনটি সিলগালা করে দেয়া হয়। আটককৃতদের দন্ডবিধির ১৮৬০’র ২৯১ ও ২৯৪’র ‘ক’ ধারা মোতাবেক ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১ জনকে এ কাজে সহযোগিতা করার জন্য ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ৭ দিনের কারাদন্ড।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ আবাসিক হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছিলো এমন অভিযোগের ভিত্তিতে রমযানকে সামনে রেখে এ অভিযান চালানো হয়। অসামাজিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.